Foto

‘হতাশ হওয়ার কিছু নেই, এখনো টুর্নামেন্টে ফেরার সুযোগ আছে’


উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৩৭ রানের বড় জয়। পরের ম্যাচেই আফগানিস্তানের কাছে লজ্জাজনক হার, তাও ১৩৬ রানে। সুপার ফোর পর্বের শুরুটাও ভালো হয়নি বাংলাদেশের। ব্যাটিং-ব্যর্থতায় ভারতের কাছে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানেই হেরেছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। দুর্দান্ত শুরুর পর ছন্দপতন। এশিয়া কাপের ১৪তম আসরে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান অবস্থাকে এভাবেই ব্যাখ্যা করা যায়।


বাংলাদেশের সামনে এখন বাঁচা-মরার লড়াই। ফাইনালে উঠতে পরের দুই ম্যাচ জিততেই হবে মাশরাফি বাহিনীর। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সামনে প্রথম বাধা আফগানিস্তান আর দ্বিতীয় বাধা পাকিস্তান। যদিও গ্রুপ পর্বে এই আফগানিস্তানের কাছেই হারের তিক্ত স্বাদ এখনো জ্বলজ্বলে। কিন্তু আত্মবিশ্বাসী হয়ে মাঠে নামার বিকল্প রাস্তা নেই বাংলাদেশের সামনে। মাশরাফির কণ্ঠে তাই দৃঢ় বিশ্বাস, এখনো ফাইনাল খেলার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়কের ভাষ্য, আমার কাছে মনে হয় এখনো সম্ভব। এত হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আমরা দুটি ম্যাচে হারব, এটা কেউই চায়নি। ফলাফলটা হতাশার, বিশেষ করে এই ম্যাচের ফলাফলটা একটু বেশি হতাশার। কারণ গত ম্যাচের তুলনায় আজকের ম্যাচটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কিন্তু আমরা আজও ব্যাটিং করা কলাপ্স করেছি, অবশ্যই হতাশার। তবে আমাদের এখনো টুর্নামেন্টে ফেরার সুযোগ আছে। একটা ভালো দিনে আফগানিস্তানের সাথে ম্যাচে যদি আমরা জিততে পারি, তাহলে ৫০-৫০ চান্স চলে আসবে, পাকিস্তানের সাথে ম্যাচে।

টানা দুই ম্যাচে ব্যাটিং বিপর্যয়। আফগানদের বিপক্ষে ১১৯ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর ভারতের সঙ্গে ১৭৩ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস। মাশরাফির ভাবনাতেও দলের ব্যাটিং লাইনআপ। এ নিয়ে তার ভাষ্য, আমরা আসলে আজকে (শুক্রবার) রান চাইওনি। প্রথম ১০ ওভারে ৬০ রান করতে হবে এমন কোনো কথা ছিল না। দুই প্রান্তে দুই নতুন বল, একটু সময় নিয়ে খেললে সহজ হয়ে যায়। আমরা সাম্প্রতিক সময়ে যেটা করেছি কোনো উইকেট না হারিয়ে ৪০-৪৫ রান করতে, যদি দ্রুত উইকেট যায়, তাহলে ৩০-৩৫ রানেও খুশি ছিলাম আমরা।

দ্রুত উইকেট পড়ে গেলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের খেলা তৈরি করতে হয়। সবসময় মিডল অর্ডার থেকে এমন প্রত্যাশা করা কঠিন। এই ধরনের ম্যাচে উপরে দুইটি উইকেট পড়ে গেলে মিডল অর্ডারে অনেক প্রেসার থাকে। পরপর দুটি ম্যাচে আমরা ব্যাটিং কলাপ্স করেছি। তবে আমি এখনো মনে করি আমরা টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাইনি। আমাদের কামব্যাক করার অবশ্যই সুযোগ আছে। আমরা একটা দিন সময় পাচ্ছি, রিগ্রুপ করে পরের ম্যাচে আমাদের নামতে হবে।

Facebook Comments

" ক্রিকেট নিউজ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ