Foto

৭ মাস পর প্রথম হারল গার্দিওলার সিটি


চেলসির কাছে হেরে লিগে টানা ৭ মাসের অপরাজিত থাকার রেকর্ড ভেঙে গেল ম্যানচেস্টার সিটির। ২১ ম্যাচ পর পাওয়া এ হারের সঙ্গে হারিয়েছে প্রিমিয়ার লিগ শীর্ষস্থানও।


ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে মরিসিও সারিকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল, ‘পেপ গার্দিওলার সিটিকে কীভাবে হারাবেন?’ জবাবে সারি বলেছিলেন, ‘আমি গার্দিওলার বিপক্ষে প্রত্যেকটি ম্যাচই হেরেছি। তাই তাঁকে কীভাবে হারাতে হয় জানি না।’ সেই প্রশ্নটা এখন করলে হয়তো চটপট উত্তর দিতে পারবেন সারি। প্রিমিয়ার লিগে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার যে স্বপ্ন দেখছিলেন পেপ গার্দিওলা আর তাঁর দল সিটি, সেই স্বপ্নকে ধূলিসাৎ করে দিল চেলসি। এনগোলো কান্তে আর ডেভিড লুইজের গোলে উড়তে থাকা ম্যানচেস্টার সিটিকে মাটিতে নামিয়ে আনল সারির শিষ্যরা।

সারিকে তাঁর দল সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে এখনো উত্তর দিতে পারবেন কি না সন্দেহ আছে। কারণ পুরো ম্যাচেই আধিপত্য বিস্তার করেছিল ম্যানচেস্টার সিটি। প্রথম অর্ধে ৬৭% পজেশন নিয়ে খেলা সিটির বিপক্ষে কোনো সুযোগই পাচ্ছিল না চেলসি। চেলসির কোচ হওয়ার পর এই প্রথম কোনো স্ট্রাইকার ছাড়া প্রথম একাদশ নামিয়েছিলেন সারি। বেঞ্চে ছিলেন অলিভিয়ের জিরু। মোরাতার সেখানেও জায়গা হয়নি, ম্যাচ স্কোয়াডে জায়গা না পাওয়া এই স্প্যানিয়ার্ড ছিলেন শুধুই দর্শক হিসেবে।

হ্যাজার্ড, পেদ্রো-উইলিয়ান দিয়ে সাজানো আক্রমণভাগ ডি-বক্সের ভেতর প্রথম কোনো শট করে প্রথমার্ধের একেবারে শেষভাগে। সেটাই এনে দিয়েছে চেলসির প্রথম গোল। ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে হ্যাজার্ডের পাসের সদ্ব্যবহার করেছেন জোরালো এক শটে। কান্তের গোলে প্রথম অর্ধ শেষ করে চেলসি। দ্বিতীয় অর্ধেও খেলায় আধিপত্য ধরে রাখে সিটি, কিন্তু গোলরক্ষক কেপা আরিজাবালাগার অসাধারণ পারফরম্যান্স ও চেলসি ডিফেন্ডারদের নিখুঁত রক্ষণকাজে গোল পায়নি সিটি। বরং ম্যাচ শেষ হওয়ার ১২ মিনিট আগে এডেন হ্যাজার্ডের কর্নার থেকে মাথা ছুঁয়ে সিটির কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন ডেভিড লুইজ।

চেলসির বিপক্ষে এ হারে ৭ মাস অপরাজিত থাকার রেকর্ড ভেঙে গেল ম্যানচেস্টার সিটির। গত মৌসুমে ম্যানচেস্টার ডার্বিতে হারার পর থেকে টানা ২১ ম্যাচ অপরাজিত ছিল পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি। কোচ হিসেবে কখনো টানা দুই ম্যাচ না হারার রেকর্ড অক্ষুণ্ন রাখলেন সারি। আর পেপ গার্দিওলা চেলসি-ভীতি হতে বের হতে পারলেন না। কোচ হিসেবে চেলসির কাছে তৃতীয়বারের মতো পরাজয়ের মুখ দেখলেন গার্দিওলা। যা তার কোচিং ক্যারিয়ারে লিগে কোনো দলের বিপক্ষে সর্বোচ্চ। এই হারে প্রিমিয়ার লিগ সেরার স্থান থেকেও ছিটকে পরেছে সিটি (৪১)। ১৬ ম্যাচে ৪২ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে এখন পর্যন্ত অপরাজিত লিভারপুল। সিটিকে হারানোর জন্য ইউর্গেন ক্লপের কাছ থেকে একটা ধন্যবাদ পেতেই পারেন সারি।

Facebook Comments

" ফুটবল সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ