Foto

২,৮০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে সৌদি


বাংলাদেশে দুই কারখানায় সাড়ে ৩৩ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে সৌদি আরবের কোম্পানি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনস। ডলারের বিনিময় মূল্য ৮৪ টাকা ধরে হিসাব করলে বাংলাদেশি মুদ্রায় এ বিনিয়োগের পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ২ হাজার ৮০০ কোটি টাকা।


সৌদি কোম্পানিটি এ দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে একটি সিমেন্ট কারখানা স্থাপন ও আরেকটি কারখানার আধুনিকায়নে বিনিয়োগ করবে।

শিল্প মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সিলেটের ছাতক সিমেন্ট কারখানার অব্যবহৃত জমিতে সৌদি-বাংলাদেশ মৈত্রী সিমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড নামে একটি নতুন কারখানা করতে ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনস ও বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) মধ্যে গত বৃহস্পতিবার একটি কৌশলগত অংশীদারি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এ জন্য শিল্প মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনসের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন হিজি ও বিসিআইসির চেয়ারম্যান শাহ মো. আমিনুল হক চুক্তিতে সই করেন।

এ ছাড়া একই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল করপোরেশনের (বিএসইসি) আওতাধীন জেনারেল ইলেকট্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানির (জেমকো) উৎপাদনক্ষমতা বৃদ্ধি ও পণ্য বৈচিত্র্যকরণে বিনিয়োগের জন্য ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনসের সঙ্গে আরেকটি কৌশলগত অংশীদারি চুক্তি সই হয়। চুক্তিতে ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনসের প্রেসিডেন্ট এন হিজি ও জেমকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সুলতান আহমেদ ভূঁইয়া স্বাক্ষর করেন।

শিল্প মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনস বাংলাদেশ ছাড়াও বিশ্বের অন্যান্য দেশে সার, সিমেন্ট, সিরামিক, ইলেকট্রনিকসসহ অন্যান্য খাতে বিনিয়োগ করেছে। এ প্রতিষ্ঠান সৌদি-বাংলাদেশ মৈত্রী সিমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড নির্মাণে প্রাথমিকভাবে ৩০ কোটি মার্কিন ডলার ও জেমকো প্রকল্পে পর্যায়ক্রমে সাড়ে ৩ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিম, সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ, বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল করপোরেশনের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমানসহ মন্ত্রণালয়ের অধীন বিভিন্ন করপোরেশন ও সংস্থার প্রধান এবং সৌদি প্রতিনিধিদলের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শিল্পসচিব বলেন, ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনসের সঙ্গে কৌশলগত অংশীদারি চুক্তি দ্বিপক্ষীয় বিনিয়োগের ক্ষেত্রে একটি মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত হবে। এ বিনিয়োগ চুক্তির ধারাবাহিকতায় আগামী দিনে বাংলাদেশের আরও বড় প্রকল্পে সৌদি আরবের বিনিয়োগ আসবে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রতিক সৌদি আরব সফরের পর দ্রুততার সঙ্গে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। মোহাম্মদ এন হিজি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগবান্ধব অবকাঠামোর ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে। সৌদি-বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় বিনিয়োগ ও বাণিজ্য সম্পর্ক দিন দিন জোরদার হচ্ছে।

চলতি বছরের আগস্টে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌদি আরব সফরে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনসের তিনটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। এতে বাংলাদেশের শিল্প খাতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করা হয়। এর ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে ব্যবসায়িক সম্পর্ক জোরদার ও শিল্প খাতে বিনিয়োগের ক্ষেত্র চিহ্নিত করতে সৌদি আরবের ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনসের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশ সফর করে।

Facebook Comments

" বিশ্ব অর্থনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ