Foto

হোয়াটসঅ্যাপ সহ-প্রতিষ্ঠাতা ‘নিম্ন শ্রেণির’ !


হোয়াটসঅ্যাপ সহ-প্রতিষ্ঠাতা ব্রায়ান অ্যাকটনকে ‘নিম্ন শ্রেণির’ বলেছেন ফেইসবুকের শীর্ষস্থানীয় নির্বাহী ডেভিড মার্কাস। সম্প্রতি অ্যাকটন দাবি করেন হোয়াটসঅ্যাপের এনক্রিপশন প্রযুক্তি হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছেন ফেইসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ। অ্যাকটনের এই দাবি অস্বীকার করে তাকে ‘নিম্ন শ্রেণির’ বলেছেন মার্কাস-- খবর আইএএনএস-এর। জান কোউমের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ প্রতিষ্ঠা করেন অ্যাকটন। চার বছর আগে ২২০০ কোটি মার্কিন ডলারে প্রতিষ্ঠানটি কিনে নেয় ফেইসবুক। এক বছর আগেই হোয়াটসঅ্যাপ ছাড়েন অ্যাকটন। চলতি বছরের এপ্রিলে প্রতিষ্ঠান ছাড়েন কোউম।


ফোর্বস-এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে অ্যাকটন দাবি করেন, মেসেজিং সেবা থেকে দ্রুত আয় বাড়ানোর দিকে ঝুঁকছেন জাকারবার্গ। হোয়াটসঅ্যাপের এনক্রিপশন প্রযুক্তিও হাতানোর চেষ্টা করেছেন তিনি।

অ্যাকটনের এমন দাবি অস্বীকার করেছেন মার্কাস। চলতি বছরের শুরুতে ব্লকচেইন গ্রুপ চালুর আগে ফেইসবুকের মেসেজিং পণ্য পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন তিনি। মার্কাস বলেন বিশ্বজুড়ে হোয়াটসঅ্যাপের এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন প্রযুক্তি চালু হয়েছে অধিগ্রহণের পরে, জাকারবার্গের পুরো সমর্থনে।

এক ফেইসবুক পোস্টে মার্কাস বলেন, “হ্যাঁ, মার্ককে এনক্রিপশনের গুরুত্ব বোঝাতে মূল ভূমিকায় ছিলেন জান কোউম, সেখান থেকে এ নিয়ে কখনও প্রশ্ন ওঠেনি।”

“এ বিষয়ে মার্কের দৃষ্টিভঙ্গি ছিল যে, হোয়াটসঅ্যাপ একটি ব্যক্তিগত মেসেজিং অ্যাপ এবং এনক্রিপশন এটি নিশ্চিত করেছে যে গ্রাহকের বার্তা আসলেই ব্যক্তিগত থাকুক।”

ব্যবসায়িক মডেল নিয়ে কথা বলার সময় মার্কাস বলেন, জাকারবার্গ দীর্ঘ সময় ধরে হোয়াটসঅ্যাপকে রক্ষা করেছেন।

“ব্যবসায়িক মেসেজিং পরিচালনার সময় এবং কোনো কিছু তৈরি ও অঙ্গীকার অনুযায়ী পণ্য সরবরাহের ক্ষেত্রে ব্রায়ান খুব ধীরে কাজ করতো এবং সত্যি কখনোই এর মধ্যে ছিলেন না।”

“সবশেষে, আমাকে পুরানো ধাচের বলতে পারেন। কিন্তু আমি মনে করি মানুষ এবং প্রতিষ্ঠানকে আঘাত করা, যা আপনাকে বিলিয়নিয়ার বানিয়েছেন এবং বছরের পর বছর আপনাকে রক্ষা ও আশ্রয় দিয়েছে, তা নিম্ন শ্রেণির পরিচয়।”

“এটি আসলে নিম্ন-শ্রেণির একদম নতুন একটি মান,” যোগ করেন মার্কাস।

চলতি সপ্তাহেই আরেকটি ধাক্কা খেয়েছে ফেইসবুক। সোমবার পদত্যাগ করেছেন ইনস্টাগ্রাম প্রতিষ্ঠাতা মাইক ক্রেইগার ও কেভিন সিসট্রম।

২০১০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ছবি শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইনস্টাগ্রাম। ২০১২ সালে একশ কোটি মার্কিন ডলারে প্রতিষ্ঠানটি কিনে নেয় ফেইসবুক।

Facebook Comments

" প্রযুক্তি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ