Foto

স্বাধীনতার ইতিহাস-বিকৃতির চেষ্টা করেছেন জিয়া ও খালেদা: তোফায়েল


আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, জিয়াউর রহমান ও তার সহধর্মিণী খালেদা জিয়া স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃতির চেষ্টা করেছেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে ৩০ লাখ মানুষ শহীদ হয়েছিলেন; আর খালেদা জিয়া বলেছিলেন ৩০ লাখ শহীদ হননি। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বিজয় ও আনন্দ র‌্যালির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তোফায়েল আহমেদ এসব কথা বলেন।


এর আগে সকালে ভোলা গজনবী স্টেডিয়ামে স্কুল ও কলেজের শিশু-কিশোর সমাবেশ, কুচকাওয়াজ ও শরীরচর্চা প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। এ সময় তোফায়েল আহমেদ আরও বলেন, স্বাধীনতার চেতনা ও মূল্যবোধকে ধরে রেখেই আমরা বাংলাদেশকে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলায় রূপান্তর করব- এটাই মহান স্বাধীনতা দিবসে অঙ্গীকার।

এদিকে বাংলা স্কুল মাঠে সমাবেশ শেষে তোফায়েল আহমেদের নেতৃত্বে ভোলা শহরে বর্ণাঢ্য বিজয় ও আনন্দ র‌্যালি হয়। অন্যদিকে দুপুরে ভোলা বাংলাবাজার ফাতেমা খানম কলেজে স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি মইনুল হোসেন বিপ্লবের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন তিনি। এ সময় সম্মানিত অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী আনোয়ারা আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মমিন টুলু।

এ ছাড়া ছিলেন সিভিল সার্জন ডা. রথীন্দ্রনাথ মজুমদার, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন, দৌলতখান উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম খান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব, সাবেক অধ্যক্ষ দুলাল চন্দ্র ঘোষ, সাবেক অধ্যক্ষ ফারুকুর রহমান, ভোলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম হাবিবুর রহমান, প্রবীণ সাংবাদিক এম এ তাহের, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ, চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক সফিকুল ইসলামসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ