Foto

সিলেটে ঐক্যফ্রন্টের প্রথম জনসভার জোর প্রস্তুতি

জোট গঠনের পর প্রথম জনসভায় ব্যাপক জনসমাগমের লক্ষ্যে সিলেটে জোর চেষ্টায় রয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। বুধবারের এই জনসভায় লাখো মানুষের অংশগ্রহণ আশা করছেন জোটের বৃহত্তম দল বিএনপির বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ঐক্যফ্রন্টের মূল উদ্যোক্তা কামাল হোসেন মঙ্গলবার রাতে সিলেট পৌঁছে বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য ‘মানুষের ঐক্য’ সৃষ্টি করতেই তাদের এই কর্মসূচি।

সংসদ ভেঙে, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের আন্দোলন জোরদারের লক্ষ্যে গত ১৩ অক্টোবর জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনের পর এটাই তাদের প্রথম জনসভা।

কামাল হোসেনের উদ্যোগে গঠিত এই জোটে বিএনপি ছাড়াও রয়েছে আ স ম আবদুর রবের জেএসডি ও নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না।

সিলেটে জনসভার জন্য ২৩ অক্টোবর দিন ঠিক করলেও পুলিশের অনুমতি না পাওয়ায় একদিন পেছানো হয়। এর মধ্যে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তির মামলায় গ্রেপ্তার হন ঐক্যফ্রন্টে শুরু থেকে সক্রিয় মইনুল হোসেন।

জোটের প্রথম জনসভার জন্য একদিন আগেই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিলেট পৌঁছেছেন গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেন। তার সঙ্গে আছেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা আ ও ম শফিকউল্লাহ, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমিন।

মঙ্গলবার সিলেট পৌঁছেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমানউল্লাহ আমান, কেন্দ্রীয় নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, নাজিমউদ্দিন আলম।

জনসভার প্রস্তুতি তদারকিতে আগে থেকে সিলেটে রয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, ইনাম আহমেদ চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মনিরুল হক চৌধুরী, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য খন্দকার আবদুল মুক্তাদির।

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মো. মনসুর আহমেদ, জেএসডির সহসভাপতি তানিয়া রব, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতনও সিলেটে পৌঁছেছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, “আগামীকাল সকালের ফ্লাইটে বিএনপি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, জেএসডির আসম আবদুর রব, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না সিলেট পৌঁছাবেন।”

বুধবার দুপুর ২টায় রেজিস্ট্রি অফিস প্রাঙ্গণে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা শুরু হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন কামাল হোসেন। প্রধান বক্তা থাকবেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল। সভাপতিত্ব করবেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

জনসভা শুরুর আগে কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের নেতারা প্রথমে শহরে হজরত শাহজালালের মাজার জিয়ারত করবেন। পরে মাজার কবরস্থানে মুক্তিযুদ্ধের সেনাপতি জেনারেল এম এ জি ওসমানীর কবর জিয়ারত করবেন তারা। সেখান থেকে খাদিমনগরে গিয়ে হজরত শাহপরানের মাজার জিয়ারত করে শহরে ফিরে জনসভাস্থলে যাবেন তারা।

কামাল হোসেন মঙ্গলবার রাতেই নেতাকর্মীদের নিয়ে হজরত শাহজালালের মাজার জিয়ারত করেন।

সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা চাচ্ছি জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হোক, যার মাধ্যমে দেশে সুশাসন নিশ্চিত হোক।”

জনসভায় তারা নিজেদের উদ্দেশ্য ও অবস্থান ব্যাখ্যা করবেন বলে জানান তিনি।
গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে স্থানীয় বিএনপি নেতা-কর্মীদের আটকেরও নিন্দাও জানান কামাল।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমরা আশা করছি, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কালকের জনসভায় গণতন্ত্র প্রত্যাশী লাখো মানুষের ঢল নামবে।

“আমরা বিশ্বাস করি, দেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি নিয়ে যে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছি, এর মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচনে দেশের মানুষের উপর চেপে বসা জগদ্দল পাথরের মতো ফ্যাসিস্ট সরকারের বিদায় ঘটবে এবং দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা হবে। ফিরে আসবে গণতন্ত্র।”

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মান্না বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমাদের এই কর্মসূচি দেশে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনসহ সাত দফা দাবিতে। যেনতেনভাবে অথবা ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো একতরফা নির্বাচনের কোনো সুযোগ এবার হতে দেওয়া হবে না।”

নির্বাচনের আগে এ ধরনের বিরোধী জোটকে স্বাগত জানালেও দুর্নীতির ও গ্রেনেড হামলার মামলায় দণ্ডিত তারেক রহমানের দলের সঙ্গে জোট গড়ায় কামাল হোসেনের সমালোচনায় মুখর আওয়ামী লীগের নেতারা।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ স্থানের পাশে বুধবার সরকারের উন্নয়ন প্রচারণার লিফলেট বিতরণ কর্মসূচিও দিয়েছে সিলেট আওয়ামী লীগ।

ডেইলী সুরমা

all bangla newspapers

ডেইলী সুরমা ডট কমে প্রকাশিত নিউজ সমূহ আমাদের নিজস্ব নিউজ রিপোর্টারের পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট , ব্লগ ওয়েবসাইট, বাংলা এবং ইংরেজী ওয়েবসাইটের সূত্র থেকেও নেয়া হয়েছে। আমাদের নিজস্ব রিপোর্টের বাহিরে অন্য নিউজগুলোর জন্য কোন প্রকার দ্বায় ডেইলী সুরমার নেই। প্রতিটি নিউজে নিউজের সোর্স দেয়া আছে। তদাপি কোন প্রকার নিউজ নিয়ে শংকা থাকলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আমরা নিউজ রিমোভ করে দেব। তাছাড়া ডেইলী সুরমায় আপনি আপনার আসে পাশের ঘটে যাওয়া ঘটনা প্রকাশ করতে আমাদের ইমেল করুন বা যোগাযোগ পাতা থেকে যোগাযোগ করুন..

Facebook Comments

সমশ্রেণীর সংবাদ