Foto

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ধরে রাখতে হবে সম্মিলিতভাবে: রাষ্ট্রপতি


সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্যকে অব্যাহত রাখতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। তিনি বলেছেন, “হাজার বছর ধরে নানা জাতি-ধর্মের মানুষ এই ভূখণ্ডে শান্তিপূর্ণভাবে মিলেমিশে বসবাস করে আসছে। তাই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আমাদের সুমহান ঐতিহ্য। সম্মিলিতভাবে এ ঐতিহ্যকে অব্যাহত রাখতে হবে।”


সোমবার বাংলাদেশ স্কাউটসের জাতীয় কাউন্সিলের ৪৭তম বার্ষিক সাধারণ সভায় রাষ্ট্রপতি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সমাজে স্বার্থপরতা, হিংসা, লোভ, ও নৈতিকতার অবক্ষয় শিশু-কিশোরদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। পাশাপাশি বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ ও প্রযুক্তির অপব্যবহারও তরুণদের বিপথে পরিচালিত করতে ভূমিকা রাখছে।

“এতে অনেক সম্ভাবনাময় প্রতিভা অকালে ঝরে যাচ্ছে। এ অবস্থা থেকে তরুণদের মুক্ত রেখে তাদের মানবিক মূল্যবোধসম্পন্ন সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। স্কাউট আন্দোলন এ ক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।”

বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশ নেওয়ার জন্য স্কাউট সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে দেশের চিফ স্কাউট আবদুল হামিদ বলেন, “পরোপকারী ও স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে একজন স্কাউট সকলের স্নেহ ও ভালোবাসা অর্জন করতে পারে। লেখাপড়ার পাশাপাশি স্কাউটরা দুর্যোগকালীন দ্রুত সাড়াদান, নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করণে অবদান রাখা, জঙ্গিবাদ ও মাদকবিরোধী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ, স্বাস্থ্যসেবা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি ক্যাম্প, স্যানিটেশন, বৃক্ষরোপণ ও পরিবেশ রক্ষার মতো বিভিন্ন সমাজ গঠনমূলক কাজে কার্যকর ভূমিকা রাখছে। এ জন্য আমি তাদের ধন্যবাদ জানাই।”

স্কাউটস সদস্যের সংখ্যা বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, “বর্তমানে বাংলাদেশ স্কাউটসের সদস্য ১৭ লাখ, যা জনসংখ্যার অনুপাতে পর্যাপ্ত নয়। স্কাউট সদস্য সংখ্যা ২১ লাখে উন্নীত করতে বাংলাদেশ স্কাউটস ন্যাশনাল স্ট্র্যাটেজিক প্লান-২০২১ বাস্তবায়ন করছে। এ পরিকল্পনার আলোকে স্কাউটের সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি স্কাউটিংয়ের মান বৃদ্ধিতে গুরুত্ব প্রদান করতে হবে।”

অনুষ্ঠানে ১৩ জনকে স্কাউটের সর্বোচ্চ পদক রৌপ্য ব্যাঘ্র অ্যাওয়ার্ড, ১৬ জনকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পদক রৌপ্য ইলিশ দেন রাষ্ট্রপতি।

এছাড়া ১০ জনকে প্রেসিডেন্টস রোভার স্কাউট অ্যাওয়ার্ড, ৫৪৬ জনকে প্রেসিডেন্টস স্কাউট অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়।

রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, পরিকল্পনামন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, বাংলাদেশ স্কাউটসের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, স্কাউটের প্রধান জাতীয় কমিশনার দুদক কমিশনার মো. মোজাম্মেল হক খান বক্তব্য দেন।

 

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ