Foto

সাংসদদের গণমাধ্যম এড়িয়ে চলতে বললেন মোদি


সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কোনও কথা নয়। এমনকি ঘরোয়া আড্ডা বা ‘অফ দ্য রেকর্ড’ কথাবার্তাও নয়। প্রথম দিনেই বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের নতুন সাংসদদের মুখে কুলুপ আঁটার নির্দেশ দিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।


মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে দেশপ্রেমিক বলে নির্বাচনের সময় প্রজ্ঞা সিংহ ঠাকুর বিতর্ক সৃষ্টি করেছিলেন। এই নিয়ে মোদিকে পর্যন্ত কথা বলতে হয়েছে। সেসব বিষয় মাথায় রেখে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ’কিছু নেতা বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য সব সময় খবরে থাকেন। তাদের সতর্ক থাকতে হবে। মিডিয়ার লোকেরাও জানে, ছ’জন এমন নমুনা রয়েছে, যাদের সামনে পৌঁছে গেলে কিছু না কিছু বলবেই।’

লালকৃষ্ণ আডবানীকে উদ্ধৃত করে মোদি বলেন, ’দিখাস-ছপাস’-এর লোভ থেকে বাঁচতে হবে। অর্থাৎ টিভিতে দেখানো বা পত্রিকায় ছবি ছাপানোর লোভ করলে চলবে না। মোদির সাবধানবাণী— সংবাদমাধ্যম নানা রকম বিষয়ে বক্তব্যের জন্য অনুরোধ করবে। সব তথ্য যাচাই করে তবেই মন্তব্য করবেন। ’অফ দ্য রেকর্ড’ আলাপচারিতা বলে কিছু হয় না। কার পকেটে কী যন্ত্র রয়েছে, কেউ জানে না।

আগের মেয়াদে মোদির বিরুদ্ধে অন্যতম অভিযোগ ছিল যে, তিনি সাংবাদিক সম্মেলন করেন না। এ বার বাকিদেরও একই পথে হাঁটার বার্তা দিচ্ছেন তিনি।

সেই সঙ্গে মোদির নির্দেশ, ভিআইপি সংস্কৃতি ছাড়তে হবে। বিমানবন্দরে চেকিং হলে খারাপ লাগলে চলবে না।

Facebook Comments

" ইন্ডিয়ান সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ