Foto

সরকারের ‘উচ্চ মহলের’ নির্দেশে মইনুলকে গ্রেপ্তার

সরকারের ‘উচ্চ মহলের’ নির্দেশেই ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযোগ করে অবিলম্বে তার মুক্তি দাবি করেছে বিএনপি। মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, “রাতে কোর্ট বসিয়ে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে সরকারের উচ্চ মহলের নির্দেশে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এটা সকলের কাছে পরিষ্কার। কারণ গতকাল প্রধানমন্ত্রী যখন সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, মইনুল হোসেন একটি মামলায় জামিন পেয়েছেন, তার বিরুদ্ধে আরো মামলা করেন, বাকীটা আমরা দেখছি।

“এই ঘোষণার কয়েক ঘন্টার মধ্য ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হল, তাকে গ্রেপ্তার করা হল। তার এই গ্রেপ্তার বেআইনি। আমি বিএনপির পক্ষ থেকে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের গ্রেপ্তারের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। অবিলম্বে আমরা তার মুক্তি দাবি করছি।”

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন হয়।

টেলিভিশনের আলোচনা অনুষ্ঠানে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তির ঘটনায় রংপুরে দায়ের হওয়া একটি মানহানির মামলায় সোমবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা মইনুলকে।

মঙ্গলবার জামিন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে ঢাকার একটি আদালত।

রিজভী বলেন, “মানহানি মামলায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেপ্তার করা একটি নজিরবিহীন ঘটনা। এই রকম মামলায় নিয়ম হচ্ছে, প্রথমে সমন জারি করে আসামিপক্ষের বক্তব্য নেওয়া হয়। আসামিপক্ষ উপস্থিত না হলে পরবর্তিতে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

“গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনকে ব্যাহত করতেই এই গ্রেপ্তার। শুধুমাত্র অপশাসনের বিরুদ্ধে এবং গণতন্ত্রের পক্ষে কথা বলাটাকেই অপরাধ হিসেবে গণ্য করছে সরকার।”

নির্বাচন নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের জবাবে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে পরিষ্কার তিনি সুষ্ঠু ও সবদলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চান না, গায়ের জোরে নির্বাচন করতে চান। আমি পরিষ্কার বলে দিতে চাই, আরেকটি একতরফা নির্বাচন হবে না, দেশের মানুষ তা হতে দেবে না।”

নির্বাচন সামনে রেখে গুপ্ত হত্যা, বিচারবহির্ভূত হত্যা, গুম-খুন, বিরোধীমত দলন, নিপীড়নের সঙ্গে দেশজুড়ে গণগ্রেপ্তার বেড়ে গেছে বলেও অভিযোগ করেন রিজভী।

চট্টগ্রামে দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম ও মহানগর সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্করকে গ্রেপ্তারের নিন্দা জানান রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, কেন্দ্রীয় নেতা তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

 

ডেইলী সুরমা

all bangla newspapers

ডেইলী সুরমা ডট কমে প্রকাশিত নিউজ সমূহ আমাদের নিজস্ব নিউজ রিপোর্টারের পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট , ব্লগ ওয়েবসাইট, বাংলা এবং ইংরেজী ওয়েবসাইটের সূত্র থেকেও নেয়া হয়েছে। আমাদের নিজস্ব রিপোর্টের বাহিরে অন্য নিউজগুলোর জন্য কোন প্রকার দ্বায় ডেইলী সুরমার নেই। প্রতিটি নিউজে নিউজের সোর্স দেয়া আছে। তদাপি কোন প্রকার নিউজ নিয়ে শংকা থাকলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আমরা নিউজ রিমোভ করে দেব। তাছাড়া ডেইলী সুরমায় আপনি আপনার আসে পাশের ঘটে যাওয়া ঘটনা প্রকাশ করতে আমাদের ইমেল করুন বা যোগাযোগ পাতা থেকে যোগাযোগ করুন..

Facebook Comments

সমশ্রেণীর সংবাদ