Foto

সমালোচনাকে ‘স্বাগত জানাবেন’ নতুন শিক্ষামন্ত্রী


শিক্ষার মানোন্নয়নে গত সরকারের নেওয়া পদক্ষেপগুলো আরও এগিয়ে নিতে উপমন্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করার প্রত্যয় জানিয়েছেন নতুন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।শপথের পরদিন মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজের দপ্তরে এসে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলকে পাশে রেখে তিনি বলেছেন, ‘স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা’ নিশ্চিত করতে সাংবাদিকদের সহযোগিতাও তাদের দরকার।


দীপু মনি বলেন, “আমরা দুজনেই সমালোচনাকে অবশ্যই স্বাগত জানাব। কোথাও আপনাদের পরামর্শ থাকলে নিশ্চয় আমাদেরকে জানাবেন, আমরা সেগুলোকে সর্বোত্তম বিবেচনার মধ্যে নেব।”

গত এক দশক শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব চালিয়ে আসা নুরুল ইসলাম নাহিদের জায়গা হয়নি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নতুন মন্ত্রিসভায়।

শিক্ষা ব্যবস্থার আধুনিকায়নের চেষ্টায় নাহিদের বিভিন্ন উদ্যোগ প্রশংসিত হয়েছে; কিন্তু প্রায় সব পর্যায়ের পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা তাকে অনেক বেশি সমালোচনার মুখে ফেলেছে। প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ অস্বীকার করে কখনও কখনও গণমাধ্যমকেও দুষেছেন তিনি।

নতুন সরকারে সেই জায়গায় প্রধানমন্ত্রী নিয়ে এসেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনিকে, যিনি ২০০৯-২০১৪ মেয়াদের সরকারে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছেন।

চিকিৎসা ও আইনের ডিগ্রিধারী দীপু মনি শিক্ষা মন্ত্রণালয় চালাতে উপমন্ত্রী হিসেবে সঙ্গে পাচ্ছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলকে। চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছেলে নওফেল এমপি হয়েছেন এবারই প্রথম।

দীপু মনি বলেন, “চেষ্টা করব, সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাব প্রধানমন্ত্রী যে বিশ্বাস ও আস্থা আমাদের উপর রেখেছেন সেই বিশ্বাস ও আস্থার মর্যাদা রক্ষা করতে।

“সরকার গত ১০ বছরে বিরাট সাফল্য অর্জন করেছে সেই সফলতাগুলোকে আরও সুসংহত করা এবং যেখানে পরিবর্তন, পরিবর্ধন করা প্রয়োজন যা কিছু করা প্রয়োজন তা করা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার পুরোপুরি বাস্তবায়ন করতে, শিক্ষাখাতের প্রতিশ্রুতিগুলো পূরণ করতে এবং শিক্ষার মানোন্নয়নে সরকারের উদ্যোগগুলো নিয়ে কাজ চলছে। সেই কাজ আরও এগিয়ে নিতে তারা কাজ করবেন।

“আমি ও নওফেল ষোলোআনাই রাজনীতির মানুষ, আমরা গণমানুষের রাজনীতি করি। দলের ভেতরেও আমরা সহযোদ্ধা ও একই জায়গায় কাজ করি। আমরা দলের মধ্যেও ভালো টিম। …শিক্ষার মত এত গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় আমরা টিম হিসেবে কাজ করব এবং সকলের সহযোগিতার মধ্য দিয়ে জনগণের প্রত্যাশা পূরণের চেষ্টা করব। শিক্ষার ক্ষেত্রে মানোন্নয়নে একযোগে কাজ করব।”

দীপু মনি বলেন, দলের নির্বাচনী ইশতেহারে যে ২১টি অঙ্গীকার করা হয়েছে তার মধ্যে শিক্ষার মানোন্নয়নের বিষয়টি অন্যতম।

“শিক্ষাকে আমরা কত গুরুত্ব দিয়ে দেখছি সেটি তো গত বছরগুলোতে আপনারা দেখেছেন। (প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে) চ্যালেঞ্জ শুধু বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বেই চ্যালেঞ্জ রয়েছে। সেই সমস্ত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা আমাদের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাব।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে গেলে আমাদের দুজন বা দুজন সচিবের চোখ-কান যথেষ্ট না, সেখানে আপনাদেরও (সাংবাদিক) সহযোগিতা আমরা চাই, এবং আমরা আশা করি আপনাদের সহযোগিতাও আমরা পাব। আপনারা আপনাদের চোখ-কানগুলো খোলা রাখবেন, আমাদের সহযোগিতা করবেন, যেন আমরা সঠিকভাবে কাজটি করতে পারি।”

প্রতিমন্ত্রী নওফেল বলেন, “বিগত নির্বাচনের পরে বঙ্গবন্ধু কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনা একটি মন্তব্য করেছিলেন, আমরা সেই মানসিকতা নিয়ে এসেছি। তিনি বলেছিলেন, ‘ক্ষমতা নয় দায়িত্ব’ এবং সেই দায়িত্বশীল আচরণ আমরা সকলেই করব। অন্তত আপাতত আমরা এই মন্ত্রণালয়ে এসে প্রথমেই সেই অঙ্গীকারটি করতে চাই।”

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ