Foto

শেখ হাসিনার জন্য দল সামলানো দুষ্কর হবে


কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, শেখ হাসিনার জন্য নিজের দল সামলানো দুষ্কর হবে। এ ছাড়া এই নির্বাচনকে কলঙ্কের নির্বাচন অভিহিত করে নির্বাচন কমিশনের প্রতি নতুন করে জাতীয় নির্বাচন দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।


আজ বুধবার সকালে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে কাদের সিদ্দিকী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘প্রতিদ্বন্দ্বিতাহীন কোনো কিছুতে আনন্দ নেই। একদলীয় পার্লামেন্ট পৃথিবীর কোথাও শুভ ফল আনতে পারেনি। এখানেও পারবে না। নিজের দলকে সামলানো শেখ হাসিনার জন্য এত দুষ্কর হবে যে একসময় বিরক্ত হয়ে শেখ হাসিনা পদত্যাগ না করেও চলে যেতে পারেন।’

কাদের সিদ্দিকীর অভিযোগ, ‘ভাড়া করা কিছু কিছু বিদেশি পর্যবেক্ষক সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে বললেও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অস্বাভাবিক কারচুপির নির্বাচন, ত্রুটিতে ভরা কলঙ্কিত নির্বাচন।’ প্রশাসনকে ব্যবহার করে কারচুপির মাধ্যমে ভোটে জিতলেও আওয়ামী লীগ মানুষের সমর্থন নিয়ে কখনো জিততে পারবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এবারের নির্বাচনে দেশের ক্ষতি হয়েছে উল্লেখ করে ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা বলেন, ‘দেশের পর ক্ষতি হয়েছে শেখ হাসিনার, নির্বাচন–পদ্ধতির ও বঙ্গবন্ধুর এবং দেশে নির্বাচন–পদ্ধতির অপমৃত্যু ঘটেছে। এ বিজয় আগামী অল্প দিনের মধ্যেই সবচেয়ে নিন্দার বিষয় হয়ে দাঁড়াবে। কারণ, অতিরিক্ত খেলে হজম হয় না। বাংলাদেশের অন্তর থেকে বর্তমান সরকার ও সরকারের নেত্রী ধুয়েমুছে উঠে গেছেন।’

ঐক্যফ্রন্টের জয়ী প্রার্থীদের শপথ নেওয়া প্রসঙ্গে কাদের সিদ্দিকী বলেন, শরিক হিসেবে তিনি শপথ নেওয়ার পক্ষে নন।

বিএনপির নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট জোটভুক্ত হয়ে এবারের নির্বাচনে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ তিনটি আসনে লড়েছিল।

লিখিত বক্তব্যে দলটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, এ বছর নানা টানাপোড়েন থাকলেও দেশের প্রায় সব রাজনৈতিক দল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে। কিন্তু সরকার ও নির্বাচন কমিশন সংবিধান এবং ন্যূনতম নীতি-নৈতিকতাকে পদদলিত করে এই নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করেছে। তফসিল ঘোষণা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদের হয়রানি করা হয়েছে বলে অভিযোগ এনে তারা বলে, সরকারদলীয় কর্মী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মিলেমিশে আগেই নৌকা মার্কায় সিল মেরে বাক্স ভরে রাখে। এ ছাড়া ধানের শীষের এজেন্টদের ঢুকতে বাধা দেওয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ করে দলটি। এই নির্বাচন বাতিল করে দ্রুত নির্দলীয় সরকারের অধীনে নতুন জাতীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে সরকার ও নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানায় কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার, যুগ্ম সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী প্রমুখ।

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ