Foto

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে আমরা এবার কঠোর হব


বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ‘আসন্ন পবিত্র রমজান মাসে জিনিসপত্রের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমরা এবার কঠোর হব। কোনোভাবেই দ্রব্যমূল্য বাড়তে দেওয়া হবে না। সব পণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। কাজেই সিন্ডিকেট করে বা অন্য কোনো উপায়ে দাম বাড়ানোর কোনো সুযোগ নেই।’ আজ সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী। টিপু মুনশি আরো বলেন, ‘রমজান হচ্ছে সিয়াম সাধনা ও আত্মনিয়ন্ত্রণের মাস। বিশ্বের প্রায় সব দেশেই রমজান সামনে রেখে দ্রব্যমূল্য কমে আসে। অথচ বাংলাদেশেই এর ব্যতিক্রম। এখানে রমজান এলে জিনিসপত্রের দাম বাড়ে। কিন্তু এবার আমরা এটা অত্যন্ত কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করব।’


এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও টিসিবির অধীনে চারটি করে মোট আটটি টিম সার্বক্ষণিক মাঠে থাকবে। এ ছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালত তদারকি করবেন। কোনো অসাধু ব্যবসায়ী জিনিসপত্রের দাম বাড়ানোর চেষ্টা করলে তাৎক্ষণিকভাবে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পবিত্র রমজানে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সংযমী হয়ে থাকার পরমর্শ দিয়ে মন্ত্রী বলেন, রমজান মাস সংযমের মাস, এই সময়ে ক্রেতা-বিক্রেতা সবাইকে সংযমী হয়ে চলতে হবে। পণ্য যথেষ্ট মজুদ আছে, তাই কোনো রকমের ঘাটতি হবে না।

এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমদানি পণ্য, যেমন—তেল, ডাল, ছোলা এগুলোর দাম বাড়বে না। তবে আবহাওয়া কারণে পচনশীল পণ্যের দাম এদিক-ওদিক হতে পারে।

এর আগে সচিবালয়ে বেসরকারি টেলিভিশন মালিকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্সের (অ্যাটকো) সঙ্গে বৈঠক করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। বৈঠকে অ্যাটকো সভাপতি অঞ্জন চৌধুরীর নেতৃত্বে টিভি মালিক প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আগামী বছর জুনের মধ্যে কেবল নেটওয়ার্ক ডিজিটালাইজড করা হবে এবং খুব শিগগির বাংলাদেশি বেসরকারি চ্যানেলগুলোর সিরিয়াল দেওয়া হবে।

Facebook Comments

" বিশ্ব অর্থনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ