Foto

যৌতুক নিয়ে মিথ্যা মামলা করলে কারাদণ্ড


সুনির্দিষ্ট শাস্তির বিধান করে সংসদে যৌতুক নিরোধ বিল, ২০১৮ পাস হয়েছে। আজ রোববার মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন। যৌতুক নিয়ে মিথ্যা মামলা করলে সাজার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিলে কোন ব্যক্তি অন্য কোন ব্যক্তির ক্ষতি সাধনের অভিপ্রায়ে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা বা অভিযোগ দায়ের করলে তিনি অনধিক পাঁচ বছর কারাদন্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত করার বিধান করা হয়েছে।


বিলে যৌতুকের সংজ্ঞায় বলা হয়, যৌতুক অর্থ বিয়ের এক পক্ষ কর্তৃক অন্য পক্ষের কাছে বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপনের পূর্বশর্ত হিসেবে বিয়ের সময় বা তারপূর্বে বা বৈবাহিক সম্পর্ক বিদ্যমান থাকাকালে, বিয়ে অব্যাহত রাখার শর্তে, বিয়ের পণ বাবদ, প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে, দাবিকৃত বা বিয়ের এক পক্ষ কর্তৃক অপর পক্ষকে প্রদানের জন্য সম্মত কোন অর্থ সামগ্রী বা অন্য কোন সম্পদ বোঝাবে। তবে মুসলিম ব্যক্তিগত আইন প্রযোজ্য ব্যক্তিগণের ক্ষেত্রে দেন মোহর বা মোহরানা অথবা বিয়ের সময় পক্ষগণের আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব বা শুভাকাক্সক্ষীর দেয়া উপহার সামগ্রী এর অন্তর্ভুক্ত হবে না।

বিলে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে বিয়ের কোন পক্ষ যৌতুক দাবি করলে তা অপরাধ হিসেবে গণ্য করে অনধিক ৫ বছর, অন্যূন এক বছর কারাদন্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত করার বিধান করা হয়েছে।

বিলে বিয়ের কোন পক্ষ কর্তৃক যৌতুক প্রদান বা গ্রহণ অপরাধ হিসেবে গণ্য করে অনধিক ৫ বছর, অন্যূন এক বছর কারাদন্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত করার বিধান করা হয়েছে।

বিলের বিধানের উদ্দেশ্য পূরণে যৌতুক প্রদান বা গ্রহণ সংক্রান্ত কোন চুক্তি ফলবিহীন বলে গণ্য করার বিধান করা হয়েছে।

বিলের বিধানের অধীন সংঘটিত অপরাধ আমলযোগ্য, জামিন অযোগ্য এবং আপসযোগ্য বলে বিধান করা হয়েছে।

বিলে এ ধরনের অপরাধের তদন্ত, বিচার, আপিল এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিষয়ে ফৌজদারি দন্ডবিধির বিধানাবলী প্রযোজ্য করার বিধান করা হয়েছে।

বিলে বিদ্যমান যৌতুক নিরোধ আইন রহিত করার বিধান করা হয়েছে।

জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিন, শামীম হায়দার পাটোয়ারী, ফখরুল ইমাম, নুরুল ইসলাম ওমর, রুস্তম আলী ফরাজী, বেগম নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী, বেগম মাহজাবীন মোরশেদ ও বেগম রওশন আরা মান্নান বিলের ওপর জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনী প্রস্তাব আনলে তা কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ