Foto

মানসিক দৃঢ়তা বাড়ানোর তাগিদ মাশরাফির


টানা দুই ম্যাচে জেতার অবস্থা থেকে হেরে গেছে রংপুর রাইডার্স। ঢাকা ডায়নাইমাইটস ও রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে যেভাবে হাতের মুঠো থেকে ম্যাচ ছুটে গেছে, তাতে বিপদ সংকেত দেখছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।


গত শনিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢাকার কাছে ২ রানে হারে রংপুর। এক পর্যায়ে ২০ বলে তাদের দরকার ছিল ২৮ রান, উইকেট ছিল ৬টি।

রাজশাহীর বিপক্ষে রোববার ৫ রানে হারে মাশরাফির দল। এদিন শেষ ৩ ওভারে তাদের দরকার ছিল ২১ রান, উইকেট ছিল ৫টি। অধিনায়ক মনে করেন, দুই ম্যাচেই সমীকরণ মেলানো উচিত ছিল তাদের।

“এখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানো কঠিন হবে। বিশেষ করে পরপর দুই ম্যাচ এভাবে হারলে তো আরও বেশি কঠিন। দুই ম্যাচই আমাদের জেতা উচিত ছিল। এভাবে হারলে ঘুরে দাঁড়ানো কঠিন হয়ে যায়। এখান থেকে বের হওয়ার শর্টকাট কোনো উপায় নেই। সামনের ম্যাচে অবশ্যই কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।”

“একটা জয় হয়তো মোমেন্টাম পরিবর্তন করে দিতে পারে। এখন আমাদের মানসিকভাবে খুব দৃঢ় হতে হবে। যেকোনো পরিস্থিতিতে মানিয়ে নেওয়ার শক্তি থাকতে হবে। পাশাপাশি শারীরিকভাবে ফিট থাকতে হবে। দলের মধ্যে সমন্বয় থাকতে হবে।”

গতবারের মতো এবারও সঠিক কম্বিনেশন গড়তে হিমশিম খেতে হচ্ছে রংপুরকে। মাত্র একজন ওপেনার নিয়ে খেলায় রাজশাহীর বিপক্ষে ক্রিস গেইলের সঙ্গে ইনিংস উদ্বোধন করেন মাশরাফি। অধিনায়ক জানান, দলে অলরাউন্ডার কম থাকায় ভারসাম্য রাখতে ভুগতে হচ্ছে তাদের।

“আমাদের টপ অর্ডার হেভি। আপাতত রাইলি রুশো একাই দলকে টানছে। ওপেনিংয়ে গেইল আছে, মিডল অর্ডারে রবি বোপারা আছে। বেনি হাওয়েল আমাদের বোলিংয়ের গভীরতা বাড়ায়। এক্ষেত্রে ওকে একাদশে রাখা গুরুত্বপূর্ণ। আমরা ছয় ব্যাটসম্যান নিয়ে খেলছি কিন্তু দেখা যায় অন্য দলগুলো সাত-আট ব্যাটসম্যান নিয়েও খেলতে পারছে।”

Facebook Comments

" ক্রিকেট নিউজ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ