Foto

মরদেহের গলায় ’ধর্ষকের পরিণতি ইহাই’ লেখা চিরকুট


ঝালকাঠিতে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে; যিনি এক মাদ্রসা ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার প্রধান আসামি বলে ধারণা করছে পুলিশ।


শুক্রবার বেলা ১২টা দিকে রাজাপুর উপজেলার আঙ্গারিয়া গ্রামে একটি ইটভাটার পাশের মাঠ থেকে ওই মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাহিদ হোসেন এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, মৃতদেহের গলায় ঝোলানো চিরকুটে লেখা ছিল, ’আমি পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ার… ধর্ষক রাকিব। ধর্ষকের পরিণতি ইহাই। ধর্ষকরা সাবধান। হারকিউলিস।’

গত ১২ জানুয়ারি ভাণ্ডারিয়া উপজেলার হেতালিয়া গ্রামে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে পানের বরজে দলবেঁধে ধর্ষণ করা হয়। ওই ঘটনায় রাকিব হাসান এবং সজল জোমাদ্দারকে আসামি করে মামলা করেন তার বাবা।

পরে ২৬ জানুয়ারি কাঁঠালিয়ার একটি ধানক্ষেত থেকে মাথায় গুলিবিদ্ধ সজলের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার গলায়ও ঝোলানো চিরকুটে লেখা ছিলো, ’মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ করার কারণে আমার এই পরিণতি।’

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ