Foto

বোথাম-সোবার্সদের ছাড়ানোর অনুভূতি ‘বোঝেন না’ সাকিব


‘নাহ, আসলে...’, এটুকু বলে একটু ভাবলেন সাকিব আল হাসান। ইতিহাসে নাম লিখিয়েছেন, একটি রেকর্ডে ছাড়িয়ে গেছেন ক্রিকেট ইতিহাসের কিংবদন্তি সব অলরাউন্ডারকে। কিন্তু অর্জনের অনুভূতির প্রশ্নে ভেবেও জুতসই কিছু পেলেন না বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক, “...আমি আসলে জানি না।”


বাংলাদেশের অনেক প্রথমের জন্ম তার হাত ধরে। চট্টগ্রাম টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারানোর দিনেও উঠলেন দেশের ক্রিকেটে অনন্য উচ্চতায়। বাংলাদেশের প্রথম বোলার হিসেবে পেয়েছেন ২০০ টেস্ট উইকেটের স্বাদ। একই সঙ্গে তার নাম লেখা হয়ে গেছে একটি বিশ্বরেকর্ডেও।

৩ হাজার রান তার নামের পাশে ছিল আগেই। ২০০ উইকেট ও ৩ হাজার রানের ডাবলে সাকিব পৌঁছলেন ক্রিকেট ইতিহাসেই সবচেয়ে কম টেস্ট খেলে। ৫৪ টেস্টে এই মাইলফলক ছুঁয়ে ছাড়িয়ে গেছেন ইয়ান বোথামের রেকর্ড। সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডার বলে বিবেচিত গ্যারি সোবার্স, আধুনিক যুগের সেরা অলরাউন্ডার জ্যাক ক্যালিস, আশির দশকের বিখ্যাত অলরাউন্ডার ইমরান খান, কপিল দেব, রিচার্ড হ্যাডলিরা এখানে অনেক পেছনে সাকিবের।

এমনিতে ব্যক্তিগত অর্জনের প্রতিক্রিয়ায় সাকিব বরাবরই নির্লিপ্ত। এসব তার মনে খুব বেশি দোলা দেয় বা আলোড়িত করে বলে প্রমাণ মেলেনি কখনোই। তবে এমন একটি অর্জনে বোথাম-সোবার্সদের ছাড়িয়ে যাওয়াও কি বাড়তি অনুরণন তোলে না মনে?

অর্জনটা বিশেষ বলেই হয়তো ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এই প্রশ্নে একটু ভাবলেন সাকিব। তবে উত্তর বদলাল না অন্য দিনগুলোর চেয়ে। নিজের যে কোনো সাফল্যেই তিনি সবসময় বলেন দলে অবদান রাখার তৃপ্তির কথা। এ দিনও ব্যতিক্রম নয়। নিজের কীর্তি তার কাছে বিশেষ হয়ে উঠেছে কেবল দল জিতেছে বলেই।

“নাহ, আসলে… আমি জানি না (অনুভূতি)! হয়তো লাগে (ভালো), কিন্তু আমি বুঝতে পারি না আসলে। মূল ব্যাপার হচ্ছে যে, যখন ম্যাচ জিতে যাই, তখন খুশি একটু বেশি লাগে। কিন্তু ম্যাচ না জিতলে, দল যদি ভালো ফল না করে, তখন এই অর্জনগুলো আসলে ওইভাবে প্রকাশ করা যায় না।”

“অনভূতিগুলো তাই আসলে একটার সাথে আরেকটা যুক্ত। যখন দল ভালো করার সাথে ব্যক্তিগত অর্জন আসে, তখন ভালো লাগে। কিন্তু উল্টোটা হলে খুব একটা অর্থ থাকে না। এই কারণেই আমি বলি, দল যত বেশি জিততে থাকবে, আমি যদি অবদান রাখতে পারি, তাহলে আসলে এই অর্জনগুলো আপনাআপনিই চলে আসবে।”

দেশের প্রথম বোলার হিসেবে ২০০ টেস্ট উইকেটের অর্জনেও মিশে থাকল দলের জয়ের রেশ।

“২০০ উইকেট পাওয়ার পরও অনুভূতিটা ভালো হতো না, যদি জিততে না পারতাম। যেহেতু জিতেছি, এখন অনুভূতি অনেক ভালো।”

 

Facebook Comments

" ক্রিকেট নিউজ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ