Foto

বুলবুল আহমেদ স্মৃতি সম্মাননা পেলেন এটিএম শামসুজ্জামান


ঢাকাই সিনেমার মহানায়ক খ্যাত অভিনেতা বুলবুল আহমেদের চলে যাওয়া ৯ বছর হয়ে গেলো। ২০১০ সালের ১৫ জুলাই তিনি না ফেরার দেশে পাড়ি জমান। তার স্মৃতিকে ধরে রাখতে এবং প্রবীণ বরণীয় শিল্পীদের স্মরণীয় করে রাখতে বুলবুল আহমেদের পরিবার ও বুলবুল আহমেদ ফাউন্ডেশনের পক্ষে প্রতিবছর সম্মাননা দেওয়ার আয়োজন করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় রোববার বুলবুল আহমেদ স্মৃতি সম্মাননা পদক দেওয়ার আয়োজন করেছে বুলবুল আহমেদ ফাউন্ডেশন। এই বছর বুলুবুল আহমেদ স্মৃতি সম্মাননা পেলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান।


বর্তমানে তিনি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কেবিনে চিকিৎসাধীন। হাসপাতালেই এই গুনী অভিনেতার হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছে বুলবুল আহমেদের পরিবার। রোববার এই স্মৃতি স্মারক হাতে পেয়ে ভীষণ খুশি হন এ টি এম শামসুজ্জামান।

হাসপাতালের কেবিনে বুলবুল আহমেদ স্মৃতি সম্মাননা পদক দেওয়ার আয়োজনটি ছিলো অন্যরকম। যেখানে ফাউন্ডেশনের পক্ষে বুলবুল আহমেদের সহধর্মিণী ডেইজি আহমেদ ও কন্যা তাহসিন ফারজানা তিলোত্তমা পদক তুলে দেন এ টি এম শামসুজ্জামানের হাতে। সেখানে আরও ছিলেন এ টি এম শামসুজ্জামানের সহধর্মিণী রুনী জামান, মেয়ে, নাতনিসহ পরিবারের সদস্যরা।

বুলবুল আহমেদ ঢাকাই সিনেমার দর্শকের কাছে চিরদিন শ্রদ্ধেয় হয়ে থাকবেন শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের অমর সৃষ্টি দুই চরিত্র ’শ্রীকান্ত’ ও ’দেবদাস’- এ দুর্দান্ত রূপদান করার জন্য। ’রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত’ ও ’দেবদাস’-এই দুটি চলচ্চিত্র দিয়ে তিনি জায়গা করে নিয়েছিলেন সব শ্রেণির দর্শকের অন্তরে। এ ছাড়া ’মহানায়ক’, ’সীমানা পেরিয়ে’, ’সূর্য্যকন্যা’ সিনেমাগুলোতে বুলবুল আহমেদ নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন অনন্য উচ্চতায়।

Facebook Comments

" শিল্প ও স্বক্রীয়তা " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ