Foto

বারবার আঘাত এলেও লক্ষ্যে অবিচল শেখ হাসিনা


শেখ হাসিনার ছবি নিয়ে আয়োজিত প্রদর্শনী ঘুরে দেখছেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ও সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। ঢাকা, ১২ অক্টোবর। জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জীবনের ওপর বারবার আঘাত এলেও কোনো কিছুই তাঁর অগ্রযাত্রাকে নিবৃত্ত করতে পারেনি। তিনি তাঁর লক্ষ্যে অবিচল। আজ শুক্রবার সকালে রাজধানীতে জাতীয় জাদুঘরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নানা অভিব্যক্তি নিয়ে আঁকা ছবির প্রদর্শনী উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন স্পিকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রদর্শনীটি যৌথভাবে আয়োজন করেছে হাসুমণির পাঠশালা ও জাতীয় জাদুঘর।


উদ্বোধনী ভাষণে শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, শেখ হাসিনার অগ্রযাত্রা, সংগ্রামের ওপর বারবার আঘাত এসেছে। তাঁর জীবনের ওপর আঘাত এসেছে। কিন্তু তিনি তাঁর লক্ষ্যে অবিচল থেকে এগিয়ে চলেছেন। ঠিক তাঁর পিতা বঙ্গবন্ধুকেও বারবার কারারুদ্ধ করেও নিবৃত্ত করা যায়নি।
হাসুমণির পাঠশালাকে বিশেষভাবে অভিনন্দন জানিয়ে স্পিকার বলেন, এটা এক অনন্য উদ্যোগ। এই জন্মদিন এমনই এক মানুষের, যিনি দেশ গড়ার সংগ্রামে নিজেকে নিবেদিত করেছেন। বাংলার মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করছেন। তাঁর জন্মদিন তো এমনভাবেই উদযাপন করা উচিত, যেখানে সৃষ্টিশীল কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত মানুষদের সামনে আনা হয়েছে।
স্পিকার আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে সমগ্র বিশ্বে আত্মমর্যাদাশীল জাতির আসনে অধিষ্ঠিত করাই হোক তাঁর জন্মদিন উদযাপনের প্রত্যয়।
ভাষণে স্পিকার প্রত্যন্ত অঞ্চলের নারীদের মেধা ও প্রতিভাকে বিকশিত করার আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, বিশাল ব্যক্তিত্বসম্পন্ন একজন মানুষের কন্যা হয়ে নিজের স্বাতন্ত্র্য, বৈশিষ্ট্য, মেধা, সাহস, শক্তি দিয়ে আরেকজন স্বতন্ত্র ব্যক্তিত্ব হিসেবে পৃথিবীর সামনে উদ্ভাসিত হয়েছেন শেখ হাসিনা। বাংলা ভাষায় একটি কথা প্রচলিত আছে, বড় বটগাছের নিচে আর কোনো গাছের জন্ম হয় না বা বৃদ্ধি হয় না। কিন্তু শেখ হাসিনা সে কথাটিকে মিথ্যে প্রমাণ করেছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু যেভাবে প্রতিটি বিষয়ে খেয়াল রাখতেন, তেমনি তাঁর কন্যারও সব বিষয়ে দৃষ্টি আছে।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন শিল্পী সমরজিৎ রায় চৌধুরী, জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক মো. মাকসুদুর রহমান পাটোয়ারী, হাসুমণি পাঠশালার সভাপতি মারুফা আক্তার পপি, জাতীয় জাদুঘরের সচিব শওকত আলী প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর ৭১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ৭১টি আঁকা প্রতিকৃতি ও জামালপুরের ১০১টি সুচিশিল্প নিয়ে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। উদ্বোধন শেষে স্পিকার, সংস্কৃতিমন্ত্রীসহ অন্য অতিথিরা শিল্পকর্মগুলো ঘুরে দেখেন। সপ্তাহব্যাপী এ প্রদর্শনী জাতীয় জাদুঘরে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত নলিনীকান্ত ভট্টশালী মিলনায়তনে প্রদর্শিত হবে।

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ