Foto

বছরটা মোটেও ভালো যাচ্ছে না রিয়াল মাদ্রিদের


লা লিগায় রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ২-০ গোলে হেরে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সোসিয়েদাদের হয়ে একটি করে গোল করেছেন উইলিয়ান হোসে ও রুবেন পার্দো।


বছরটা মোটেও ভালো যাচ্ছে না রিয়াল মাদ্রিদের। রিয়ালের চেয়ে বছরটা বেশি খারাপ যাচ্ছে কোচ সান্তিয়াগো সোলারিরই। জিদানযুগ শেষের পর রিয়াল মাদ্রিদের ভার ওঠে এই আর্জেন্টাইনের ওপর। তো শুরুটা বেশ ভালোই হয়েছিল বলা চলে। কিন্তু ২০১৯ সালে পা দিয়েই যেন হোঁচট খেলেন সোলারি। বছরের প্রথম ম্যাচে ভিয়ারিয়ালের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করে পয়েন্ট হারানো রিয়াল মাদ্রিদ রোববার রাতে ২-০ গোলে হেরেছে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে।

নিজেদের দুর্গে খেলার শুরুতেই ধাক্কা খায় রিয়াল মাদ্রিদ। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই পিনপতন নীরবতা নেমে আসে। ডি বক্সে ক্যাসেমিরোর ফাউলের শিকার হন সোসিয়েদাদের খেলোয়াড় মেরিনো। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পটকিক থেকে বল জালে জড়াতে মোটেও ভুল করেননি উইলিয়ান হোসে।
এরপর বল দখলে অতিথিদের চেয়ে অনেক এগিয়ে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ কোনোভাবেই গোলমুখ খুলতে পারছিল না। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে ভাসকেজের একটা শটই ছিল গোলের সুযোগ তৈরির মতো। এ ছাড়া পুরো প্রথমার্ধে সোসিয়েদাদের জমাট রক্ষণ রিয়াল খেলোয়াড়দের কাছে দুর্বোধ্যই রয়ে যায়।
দ্বিতীয়ার্ধেও একই দশা। কোনোমতেই অতিথিদের রক্ষণ ভেদ করতে পারেনি স্বাগতিকেরা। এরপর ম্যাচের ৬১তম মিনিটে লুকাস ভাসকাজের দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়া, রিয়ালের দশজনের দলে পরিণত হওয়া যেন—‘মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা’!

গোল পরিশোধ করতে যেয়ে সোলারির শিষ্যরা উল্টো গোল হজম করে বসে ম্যাচের ৮৩তম মিনিটে। এবার রিয়ালের বুকে ছুরি চালান সোসিয়েদাদের রুবেন পার্দো। পার্দোর গোলে রিয়ালের বিপক্ষে এ নিয়ে গেল ২৩ ম্যাচে দ্বিতীয় জয় পায় সোসিয়েদাদ। এর আগে ২২ ম্যাচে রিয়ালের বিপক্ষে সোসিয়েদাদের ছিল একটা মাত্র জয়। তাও সেটা ২০১৪ সালে!

এই হারের পর টেবিলের শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার সঙ্গে রিয়ালের ব্যবধানটা আরও বেড়ে গেল। ১৮ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচ নম্বরে রিয়ালের অবস্থান। আর ১৭ ম্যাচ খেলে শীর্ষে থাকা বার্সার ঝুলিতে আছে ৩৭ পয়েন্ট। পরের ম্যাচে বার্সেলোনা গেটাফের বিপক্ষে বার্সেলোনা জিতলে পয়েন্ট ব্যবধান আরও বাড়তেও পারে।

 

Facebook Comments

" ফুটবল সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ