Foto

বঙ্গবন্ধু জাদুঘর পরিদর্শনে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি


ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর সড়কে অবিস্থিত বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর ঘুরে দেখলেন রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শনে তিনদিনের বাংলাদেশ সফরে আসা হলিউডের বিখ্যাত অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) বিশেষ দূত হিসেবে আসা এই অভিনেত্রী বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে প্রায় এক ঘণ্টা সময় কাটান এবং এর প্রতিটি অংশ ঘুরে দেখেন।


হলিউডের এই বিখ্যাত অভিনেত্রীকে জাদুঘরে স্বাগত জানান বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানার ছেলে এবং সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) ট্রাস্টি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববি। ১৯৭৫ এর ১৫ অগাস্ট এই বাড়িতেই সপরিবারে নিহত হন স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান। সে সময় দেশের বাইরে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান তার দুই মেয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। পরিদর্শনের সময় এই বাড়ির এমন উল্লেখযোগ্য ইতিহাস জানানো হয় এই সফরে আসা এই অভিনেত্রীকে। জাদুঘর পরিদর্শন শেষে দর্শনার্থী বইয়ে স্বাক্ষর করেন প্রথমবারের মত বাংলাদেশে আসা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। এ সময় তিনি লেখেন, ’এই বিশেষ বাড়িটিতে এসে আমি বেশ আবেগাপ্লুত। বাড়িটি যথাযথোভাবে সংরক্ষণ করা হয়েছে জেনে আমি কৃতজ্ঞ’।

এর আগে মঙ্গলবার প্রথম দিনের সফরে কক্সবাজারের টেকনাফের শরণার্থী শিবির পরিদর্শন করেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। এদিন বেলা দেড়টার দিকে তিনি চাকমারকুল শরণার্থী শিবিরে পৌঁছেন। ওই ক্যাম্পে জোলি মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলেন। বৃহস্পতিবার শেষ হবে তার তিনদিনের সফর। এ সময়ের মধ্যে রোহিঙ্গাদের জন্য স্থায়ী সমাধান খোঁজার চেষ্টা করবেন তিনি।

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ