Foto

ফেরদৌস-নূরকে নিয়ে মমতার সমালোচনায় মোদি


বাংলাদেশের অভিনেতা ফেরদৌস ও নূর ভারতের নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূলের পক্ষে প্রচারণা চালিয়েছেন। এ নিয়ে সমালোচনা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শনিবার সকালে পশ্চিমবঙ্গের বুনিয়াদপুরে দলীয় প্রার্থীর নির্বাচনী সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ বিষয়ে সমালোচনা করেন তিনি।


নরেন্দ্র মোদি বলেন, তৃণমূলকে এখন বাইরের দেশের মানুষকে এনে নির্বাচনের প্রচার করতে হচ্ছে। ভারতের ইতিহাসে যা আর দ্বিতীয়টি নেই। ভোট ব্যাংক এবং তুষ্টিকরণের রাজনীতির জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব কিছু করতে পারেন।

গত ১৪ এপ্রিল রায়গঞ্জে তৃণমূল প্রার্থীর নির্বাচনী রোড শোতে দেখা গেছে বাংলাদেশের অভিনেতা ফেরদৌসকে।পরদিন কলকাতার দমদমের তৃণমূলের আরেক নির্বাচনী সভায় রোডশোতে দেখা গেছে বাংলাদেশের আরেক অভিনেতা গাজি নূরকে। ইতিমধ্যে দুইজনের ভিসা বাতিল করে দেশ ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে ভারত সরকার।

১৬ এপ্রিল রাতে ঢাকায় ফিরে ফেরদৌস এর জন্য জাতির কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন ।ভিসা জটিলতার কারণে গাজি নূর এখনও কোলকাতায় অবস্থান করছেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাতিজা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিষয়ে কড়া সমালোচনা করেন নরেন্দ্র মোদি বলেন, পিসি-ভাতিজা মিলে বাংলার সর্বনাশ করছেন। তিনি বাংলায় উচ্চারণ করে বলেন, সারাদেশ জানে পশ্চিমবঙ্গে নতুন কিছু হতে চলেছে। এখানে এবার বিজেপির সমর্থনের ঢেউ বইছে।

সভায় আগত জনগণদের দেখিয়ে মোদি বলেন, বিজেপির জনসমর্থন দেখে দিদির ঘুমে স্পিড বেকার পড়ে গিয়েছে। দ্বিতীয় দফার ভোটে পশ্চিমবঙ্গের মানুষেরা এবার বিজেপিকেই ভোট দেবে বলে মনে করেন মোদি।

ক্ষমা চেয়ে ফেরদৌস জানান, আবেগতাড়িত হয়ে ভারতের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন। তবু দেশের রাজনৈতিক মহলে ও সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি বিভিন্ন ভাবে তিরস্কৃত হচ্ছেন।

 

Facebook Comments

" বিশ্ব সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ