Foto

পাকিস্তানে নাচতে না চাওয়ায়...


আসমা আজিজ নাচতে চাননি। তাই কর্মচারীদের সঙ্গে নিয়ে স্ত্রীকে মারধর করে মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছেন তাঁর স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের রাজধানী লাহোরে সামরিক কর্মকর্তাদের অভিজাত আবাসিক এলাকায়।


সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক ভিডিওতে দেখা যায়, আসমা আজিজ তাঁর স্বামীর নির্যাতনের বর্ণনা দেওয়ার পাশাপাশি পুলিশের কাছে সাহায্য না পাওয়ার অভিযোগ করছেন।

ভিডিওতে আসমা আজিজ বলেন, কর্মচারীদের সামনে স্বামী তাঁকে নাচতে বললে তিনি অস্বীকার করায় কর্মচারীদের সঙ্গে নিয়ে স্বামী তাঁর কাপড় টেনে খুলে ফেলেন। পাইপে বেঁধে মারধর করেন। স্বামী যখন তাঁর চুল কেটে মাথা ন্যাড়া করে দিচ্ছিলেন, তখন কর্মচারীরা তাঁকে (আসমা) ধরে রেখেছিলেন। চুলগুলো স্বামী পুড়িয়ে দেন। তাঁকে নগ্ন করে ঝুলিয়ে রাখারও হুমকি দেওয়া হয়।

আসমা জানান, ঘটনার পর তিনি কাহনা থানায় অভিযোগ করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ তাঁর কাছে অর্থ চায়। আসমা জানান, তাঁর বাবা-মা বেঁচে নেই, যাওয়ার কোনো জায়গা নেই।

পাঞ্জাব পুলিশের মহাপরিদর্শক আমজাদ জাভেদ সালেমির নজরে এলে তিনি ঘটনাটি তদন্তের নির্দেশ দেন। আসমাকে নির্যাতনের ঘটনায় প্রথম অভিযোগটি দায়ের হয় ২৬ মার্চ। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে আসমার স্বামী ও একজন কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক দ্য জর্জটাউন ইনস্টিটিউটের নারী, শান্তি ও নিরাপত্তা সূচকে পাকিস্তানকে নারীর জন্য সবচেয়ে খারাপ পাঁচটি দেশের একটি বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

 

Facebook Comments

" বিশ্ব সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ