Foto

নির্বাচন ঠেকানোর মতো শক্তি কারও নেই


নির্বাচন ঠেকানোর মতো শক্তি কারও নেই— ষড়যন্ত্র আছে থাকবে দেশের জনগণ সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করবে বলে এ অভিমত ব্যক্তস করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কারও হুমকিতে ঘরে বসে থাকলে চলবে না কাজ করতে হবে। যতক্ষণ সাহস আছে ততক্ষণ মানুষের জন্য কাজ করে যাবো। রোববার বিকেল ৪টায় গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। নেপালে বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণ বিষয়ে জানাতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। যথাসময়ে সংবিধান মেনেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আর জনগণ পাশে থাকলে এ নির্বাচন কেউ ঠেকাতে পারবে না।


আওয়ামী লীগ গত দুই মেয়াদে দেশের যে উন্নয়ন করেছে তাতে জনগণ নৌকা প্রতীকেই আবার ভোট দেবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটা দলটির নিজস্ব বিষয়— এসময় তিনি নির্বাচনে সীমিত পরিসরে ইভিএম পদ্ধতির পরীক্ষামূলক ব্যবহারের পক্ষে মত দেন।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভোট গ্রহণ করা হয় এর উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে সীমিত আকারে পরীক্ষামূলক ব্যবহার করা যেতে পারে।

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে সাত দেশের অর্থনৈতিক জোট বিমসটেকের চতুর্থ শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণ শেষে শুক্রবার দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার বিকালে সম্মেলনের বিস্তারিত তুলে ধরতে গণভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। বাংলাদেশ বিমসটেকের মতো সহযোগিতামূলক প্লাটফর্মের সঙ্গে কাজ করে যাবে বাংলাদেশ। এসময় সম্মেলনের বাইরে অন্যান্য প্রসঙ্গেও সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আসছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নির্ধারিত সময়েই সংবিধান মেনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আর যদি জনগণ চায় তবে তার দল আবারও সরকার গঠনের সুযোগ পাবে।

নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশের সুশীল সমাজের নেতাদের এক মঞ্চে জোট গঠনের যে আভাস দেখা যাচ্ছে সে প্রসঙ্গে কথা বলেন তিনি।

নির্বাচন নিয়ে সংলাপ আয়োজন ও তফসিল ঘোষণার আগে সরকারের পদত্যাগসহ বিএনপির বেশ কিছু শর্তের বিষয়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি নির্বাচনে আসার বিষয়ে সরকারের কিছু করার নেই।

আর রাজনৈতিক নয়, দুর্নীতির কারণে খালেদা জিয়া কারাগারে-এ মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার মুক্তির বিষয়টি আদালত অথবা রাষ্ট্রপতির ক্ষমার ওপর নির্ভরশীল।

প্রস্তুতি ছাড়া নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে তাড়াহুড়ো করা যাবে না বলেও আরেক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা ছাড়া দেশ এগুতে পারে না। ২০২১ সালের পরিকল্পনা নিয়ে সরকার এগুচ্ছে।

জনগণ পাশে থাকলে সময়মতো অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Facebook Comments

" টিভি সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ