Foto

নামাজের ছবি তুলে আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেল এই তরুণী


বিভিন্ন স্থানে জনসম্মুখে নামাজ পড়ার ছবি তুলে আন্তর্জাতিক পুরস্কার জিতেছেন সানা উল্লাহ নামে যুক্তরাষ্ট্রের এক মুসলিম তরুণী। ‘যেসব স্থানে নামাজ পড়া যাবে’ `Places You’ll Pray’ এমন শিরোনামে তোলা ছবিগুলোর আলোকে তিনি এ বছর ‘গোল্ডজিহার’ (Goldziher Prize) অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন ।


সানার তোলা ছবিগুলো হাফিংটন পোস্ট, ফিউশন, কোয়ার্টজসহ অনেক সাইটে প্রকাশিত হয়।

পুরস্কার জয়ী সানা উল্লাহ ২০১৭ সালে ফটো সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিমদের কোনো কাজে খুব দক্ষতার স্বীকৃতিস্বরূপ এ পুরস্কার দেয় দেশটির সাংবাদিকরা।

যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ৬ জন ব্যক্তির মধ্যে সানা উল্লাহ একজন, যিনি ৫ হাজার ইউএস ডলার জিতেছেন। অন্য পাঁচজন হলেন লায়লা ফাদেল, হান্নাহ আল্লাম, আয়মান ইসমাইল, জায়নাব সুলতান এবং সি চেন। তাদের মধ্যে ৫ জনই নারী।

পুরস্কার জয়ী এই বুদ্ধিদীপ্ত বলেন, "ইসলামের এক চোখের অংশ এই পুরস্কার যা অনেক মানুষ দেখ পান না অথবা একই সময়ে অনেকে যারা মুসলিম না তারা দেখতে পান না। আবার হতে পারে তারা দেখতে পায়, তারা জানে না।"

২০১৫ সাল থেকে সানা নামাজ পড়ার ছবি তুলতে শুরু করে। এই ছবিগুলোতে প্রধানত আমেরিকান মুসলিমদের নামাজ পড়ার সৌন্দর্য প্রদর্শিত হয়। ছবিগুলো ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে দেওয়ার মাধ্যমে ২৫ হাজার ফলোয়ার নিয়ে ক্যাম্পেইন শুরু করে আমেরিকান মুসলিম আলোকচিত্রিরা।

ইসলাম ও মুসলমানদের নিয়ে বিতর্কের সময়টিতে আমেরিকায় নামাজের ছবি উপস্থাপনের মাধ্যমে এ অ্যাওয়ার্ড লাভ ইসলাম ও মুসলমানদের জন্য এক বড় বিজয়।

খ্রিস্টান এবং ইহুদি ধর্মের পরে ইসলাম ধর্ম আমেরিকার তৃতীয় বৃহত্তম ধর্ম। ২০১৭ সালের এক গবেষণায় দেখা যায় যে, আমেরিকার মোট জনসংখ্যা ১ দশমিক ১ ভাগ মুসলিম।

মুসলিম তরুণী সানা উল্লাহর প্রকাশিত এ ছবিগুলো প্রমাণ করে আমেরিকায় মুসলিমরা নির্ভয়ে যে কোনো স্থানেই নামাজ আদায় করতে সক্ষম। নিঃসন্দেহে এটি শান্তি ও সম্প্রীতির নিদর্শন। আগামী ২ মে ২০১৯ আমেরিকার ওয়াশিংটন ডিসি"র জাতীয় প্রেসক্লাবে পুরস্কার প্রদান করা হবে।

 

Facebook Comments

" বিশ্ব সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ