Foto

নরসিংদীতে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের ঘটনায় দুটি মামলা


নরসিংদীর শেখেরচর ও মাধবদী এলাকার দুটি বাড়িতে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের ঘটনায় সন্ত্রাস দমন আইনে দুটি মামলা হয়েছে। শেখেরচরের ভগীরথপুর এলাকার বিল্লাল মিয়ার বাড়ির পাঁচতলায় অভিযানের ঘটনায় গতকাল বুধবার মাধবদী থানায় মামলা করেন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এনায়েত কবির। ওই মামলায় নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার বাসিন্দা হাফিজকে আসামি করা হয়েছে। হাফিজ জঙ্গিদের বাড়ি ভাড়া নিতে সহায়তা করতেন।


মাধবদী পৌর এলাকার ছোট গদাইরচর গাঙপার এলাকার হাজি আফজালের সাততলা বাড়িতে অভিযানের ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার মামলা করেন মাধবদী থানার এসআই উত্তম কুমার বিশ্বাস। এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া জঙ্গি খাদিজা আক্তার মেঘনা ও মৌসহ অজ্ঞাত আরো পাঁচ থেকে ছয়জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। মামলায় তিন থেকে চারজনকে পলাতক হিসেবে দেখানো হয়েছে।

দুটি মামলা হওয়ার কথা নিশ্চিত করে মাধবদী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফজলু বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া জঙ্গি মেঘনা ও মৌকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

গত সোমবার রাতে শেখেরচর ও মাধবদীর গাঙপাড় এলাকায় দুটি জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পায় পুলিশ। মঙ্গলবার শেখেরচরের বাড়ির পাঁচতলার ফ্ল্যাটে থাকা লোকজনের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধ হয়। বিকেলে অভিযান শেষে দুজন নিহত হওয়ার কথা জানায় পুলিশ। নিহত ব্যক্তিরা হলেন আবু আব্দুল্লাহ আল বাঙ্গালী (২৬) ও তাঁর স্ত্রী মনি (২০)। অন্যদিকে গতকাল মাধবদীর গাঙপাড়ের নিলুফা ভিলা থেকে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন দুই নারী। তাঁদের নাম খাদিজা আক্তার মেঘনা (২৪) ও মৌ (২০)। তাঁরা নব্য জেএমবির সদস্য বলে দাবি করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে শেখেরচরে অভিযান শেষে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান ডিআইজি মনিরুল ইসলাম জানান, অভিযানে নিহতদের মধ্যে একজন পুরুষ ও একজন নারী। তাঁরা নব্য জেএমবির সদস্য। প্রাথমিকভাবে তাঁদের পূর্ণাঙ্গ পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। গত ৩ অক্টোবর এখানে ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিলেন তাঁরা। ছোট গদাইরচর গাঙপাড় এলাকার জঙ্গিদের সঙ্গে এখানকার জঙ্গিদের যোগসাজস রয়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মনিরুল ইসলাম বলেন, আমরা তাদের আত্মসমর্পণ করতে বলেছিলাম। কিন্তু তারা আমাদের ওপর গুলি চালায়। পরে শুরু হয় বন্দুকযুদ্ধ। এখন তারা পুলিশের গুলিতে মারা গেছে, নাকি নিজেরা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে মারা গেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আস্তানা থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র এবং চারটি অবিস্ফোরিত বোমা উদ্ধার করা হয়েছে।

ছোট গদাইরচর গাঙপাড় এলাকায় অভিযান শেষে গতকাল মনিরুল ইসলাম জানান, আত্মসমর্পণকারী নারীরা নব্য জেএমবির সদস্য। তাঁরা মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষার্থী। ২০১৬ সালে হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার পর মিরপুর মডেল থানায় তাঁরা গ্রেপ্তার হয়েছিলেন। পরে প্রায় এক মাস কারাবন্দি থাকার পর তাঁরা জামিনে ছাড়া পান।

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ