Foto

নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়োগ


সাংবাদিক জামাল খাশোগি ও ইয়েমেন যুদ্ধে দেশের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন হওয়ার পর এবার তা উদ্ধারে প্রশাসনে পরিবর্তন এনেছেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ। এতে দেশটির সাবেক অর্থমন্ত্রীকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।


মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার পর আন্তর্জাতিক চাপে পড়ে সৌদি আরব। ইয়েমেন যুদ্ধে অনবরত বিমান হামলায় মানবিক সংকট নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়ে দেশটি।

এতে সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান ও যুবরাজ মোহম্মদের সুনামও নষ্ট হয়েছে। ২০ বছর ধরে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন ইব্রাহিম আল আসাফ। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল ও বিশ্বব্যাংকে সৌদি আরবের প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি।

এবার আদিল আল জুবায়েরের কাছ থেকে দায়িত্ব নেয়ার পালা তার। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলেন, খাশোগি হত্যাকাণ্ডের পর বৈশ্বিক সমালোচনার মুখে রিয়াদের হয়ে কাজ করেছেন আদেল আল জুবায়ের। এতে তার কর্মকাণ্ডের ওপর কলঙ্কের ছাপ পড়েছে। কাজেই নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়োগ করা অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।

আসাফ মূলত নির্দেশনা তামিলকারী। কিন্তু আন্তর্জাতিক অঙ্গনের দেশটির নিভে যাওয়া ভাবমর্যাদা বাড়াতে তিনি নিজের ব্যক্তিত্ব কাজে লাগাতে পারবেন। এ বিষয়টিকেই এখানে গুরুত্ব দিয়ে ভাবা হয়েছে।

ব্রিটিশ চ্যাথাম হাউসের থিংক ট্যাংক নেইল কুইলিয়াম বলেন, নতুন বছরে নতুনের জন্য এই বলয়। এতে সত্যিকার কোনো পরিবর্তন আসবে না।

গত বছর সৌদি যুবরাজের দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে আটক হয়েছিলেন আসাফ। কিন্তু পরে দ্রুতই তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া ন্যাশনাল গার্ডের প্রধান হিসেবে যুবরাজ খালিদ বিন আয়াফের স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে আবদুল্লাহ বিন বান্দার বিন আবদুল আজিজকে। আর জাতীয় নিরাপত্তা প্রধানের দায়িত্ব পেলেন খালিদ বিন কিরার আল হার্বি।

আর জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ পেলেন হার্ভাড শিক্ষিত মুসায়েদ আল আইবান। তিনি দেশটির প্রথম গোয়েন্দাপ্রধানের সন্তান।

Facebook Comments

" বিশ্ব সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ