Foto

দাদির গর্ভে জন্ম তার


দাদির পেটে জন্ম নিল এক শিশু উমা। ৬১ বছর বয়সী দাদি সিসিলি ইলেজে সোমবার প্রসব করেছেন নাতিকে। কিভাবে তা সম্ভব! হ্যাঁ, কৃত্রিম পদ্ধতি আইভিএফ ব্যবস্থায় তার ছেলে ম্যাথিউ ইলেজে (৩২)-এর সন্তান ধারণ করেছিলেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের নেব্রাস্কায়। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন ডেইলি মেইল।


সিসিলি ইলেজে সর্বশেষ ৩০ বছরেরও বেশি সময় আগে সন্তান প্রসব করেছেন। কমপক্ষে ১০ বছর আগে বন্ধ হয়ে গেছে তার ঋতুচক্র। তার ছেলে ম্যাথিউ ইলেজে বিয়ে করেছেন ইলিয়ট ডগার্টি (২৯)-কে।

ছেলে এবং পুত্রবধূ সন্তান ধারনের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল। এক পর্যায়ে তাদের মাথায় আসে আইভিএফ পদ্ধতির কথা। দু’বছর আগে তারা এ নিয়ে আলোচনা শুরু করে। কিন্তু এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে হলে সন্তান ধারণ করবে কে!

ঠিক এ সময়ে এগিয়ে আসেন ম্যাথিউয়ের মা সিসিলি ইলেজে। তিনি প্রস্তাব দেন নিজের ছেলে ম্যাথিউয়ের সন্তানের ভ্রুণকে তিনি পেটে ধারণ করতে চান। এমনভাবে কৃত্রিম পদ্ধতিতে গর্ভধারণকে তিনি খুব পছন্দ করেন। তার এমন প্রস্তাবে বিস্মিত হন ছেলে ও পুত্রবধু। এ বিষয়ক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেয়া হয় নেব্রাস্কার ওমাহা শহরে। ডা. ক্যারোলাইন মাউদ ডগার্টির সঙ্গে আলোচনা করেন ছেলে ম্যাথিউ। জবাবে তিনি জানিয়ে দেন তার মা যে প্রস্তাব দিয়েছেন তা হেসে উড়িয়ে দেয়ার মতো নয়।
ফলে সিসিলির ডাক পড়ে হাসপাতালে। সেখানে রক্ত, কোলেস্টেরলের পরীক্ষা করা হয়। করা হয় ম্যামোগ্রাম, আলট্রাসাউন্ড সহ সব রকম প্রয়োজনীয় পরীক্ষা। অবশেষে চিকিৎসক তাকে জানিয়ে দেন, তিনি সন্তান ধারণের জন্য পূর্ণাঙ্গ সুস্থ এবং তিনি ম্যাথিউয়ের সন্তানের ভ্রুণ নিজের গর্ভে নিয়ে তাকে বড় করে তুলতে পারবেন। এগিয়ে এলেন ইলিয়টের ২৬ বছর বয়সী বোন লিয়া রিব। তিনি ম্যাথিউ এবং ইলিয়টকে তার ডিম্বানু প্রস্তাব করলেন।

সিসিলির ধারাবাহিক হরমোন পরীক্ষা করা হলো। ইলেজের শুক্রাণু নিয়ে চিকিৎসক বেশ কিছু নিষিক্ত ডিম্বাণু প্রতিস্থাপন করলেন সিসিলির গর্ভাশয়ে। প্রথম প্রচেষ্টায়ই সফল হলেন চিকিৎসকরা। অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লেন সিসিলি। তার পর নয় মাসের জটিলতা শুরু। সকালে অসুস্থতা বোধ করতে লাগলেন। রক্তের চাপ উঠানামা করতে থাকে। তবে ধৈর্য্য হারান নি সিসিলি। তার পরিণতিতে সোমবার তিনি জন্ম দিলেন ছেলের সন্তান উমা’কে। তবে বিস্ময়ের বিষয় হলো, তিনি স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় এই শিশুকে জন্ম দিয়েছেন। চিকিৎসকরা সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে তার প্রসব করাতে চেয়েছিলেন। উমা ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর তাকে যখন সিসিলির কাছে দেয়া হলো তিনি পরম মমতায় তাকে বুকের সঙ্গে জড়িয়ে ধরলেন। এ যে দাদির আদর।

 

Facebook Comments

" বিশ্ব সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ