Foto

টেকনাফ-সেন্ট মার্টিনে পর্যটক পরিবহন শুরু


একাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচনকে কেন্দ্রে করে কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে পর্যটকবাহী জাহাজ চার দিন বন্ধ থাকার পর আজ মঙ্গলবার থেকে চলাচল শুরু হয়েছে। সকালে কেয়ারি ক্রুস অ্যান্ড ডাইন নামে একটি পর্যটকবাহী জাহাজে করে ১৬৬ পর্যটক সেন্ট মার্টিন গেছেন।


কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার বলেন, সংসদ নির্বাচনের সময় নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে গত শুক্রবার থেকে সোমবার বিকেল (২৮-৩১ ডিসেম্বর) পর্যন্ত এ নৌপথে পর্যটক পরিবহনের ওপর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখার আদেশ ছিল। দেশি-বিদেশি পর্যটকের কথা বিবেচনা করে মঙ্গলবার সকাল থেকে এ নৌপথে জাহাজ চলাচলে আর কোনো ধরনের বাধা নেই।

কেয়ারি ক্রুস অ্যান্ড ডাইন জাহাজের টেকনাফের ব্যবস্থাপক শাহ আলম বলেন, চার দিন বন্ধ থাকার পর জেলা প্রশাসনের নির্দেশে মঙ্গলবার সকালে ১৬৬ পর্যটক নিয়ে সেন্ট মার্টিন গেছে জাহাজটি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) টেকনাফ অঞ্চলের পরিদর্শক (পরিবহন) মোহাম্মদ হোসেন বলেন, গত বছরের ২৬ অক্টোবর থেকে এ নৌপথে প্রথমে দুটি পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু করে। এরপর পর্যায়ক্রমে কেয়ারি সিন্দাবাদ, কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন, বে-ক্রুস, এলসিটি কাজল, এমভি ফারহান ক্রুজ ও গ্রিন লাইন-১ নামে ছয়টি জাহাজ চলাচল করে আসছিল। সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে চার দিন বন্ধের পর আবার জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে।

টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রবিউল হাসান বলেন, গত ২৮ থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জাহাজ চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। মূলত সংসদ নির্বাচনের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে এ জাহাজ চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। চার দিন শেষে পুনরায় মঙ্গলবার সকাল থেকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ধারণক্ষমতার বেশি পর্যটক পরিবহন না করার পাশাপাশি পর্যটকেরা যাতে কোনো ধরনের হয়রানি শিকার না হন, সেদিকে খেয়াল রাখতে জাহাজ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments

" ভ্রমণ ও প্রকৃতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ