Foto

টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গা নিহত


কক্সবাজারের টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গা মাদককারবারি নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। রোববার রাত ২টার দিকে আটক রোহিঙ্গাদের নিয়ে তাদের শিবিরে ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধারে গেলে এই ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা বাঁচা মিয়ার ছেলে মুহাম্মদ আলম (৩৫) ও জাদিমুড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আলী হোসেনের ছেলে মুহাম্মদ রফিক (২০)।


টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানিয়েছেন, ’বন্দুকযুদ্ধে’ পুলিশের ২ কর্মকর্তাও আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ২ হাজার ২শ’ পিস ইয়াবা, ২টি এলজি, ৭ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৭ লাখ নগদ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

তিনি জানান, ইয়াবা কারবারি রোহিঙ্গা আলম ও রফিককে রোববার সন্ধ্যায় আটক করে পুলিশ। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী রাত ২টার দিকে লেদা ক্যাম্প এলাকায় ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আটক ইয়াবা কারবারিদের সহযোগীরা গুলিবর্ষণ করে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় ৪০ রাউন্ড গুলি চালানোর পর ইয়াবাকারবারিরা পিছু হটে যায়। তখন ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে রফিক ও আলমের গুলিবিদ্ধ দেহ পাওয়া যায়। এ সময় আহত হন এসআই সাব্বির ও বাবুল। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতদের মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় মাদক ও অস্ত্র আইনে পৃথক মামলা হচ্ছে।

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ