Foto

জাতীয় ঐক্য করতে জেল থেকেই খালেদা জিয়ার বার্তা


‘আসুন ন্যূনতম কর্মসূচি ও দা‌বি আদা‌য়ে জনগণ‌কে স‌ঙ্গে নি‌য়ে আ‌ন্দোলন শুরু ক‌রি। খা‌লেদা‌ জিয়াসহ সকল কারাব‌ন্দির মু‌ক্তি ও জনগ‌ণের সরকার প্রতিষ্ঠা ক‌রি।’ যেকোনো মূল্যে জাতীয় ঐক্য তৈরির মাধ্যমে ক্ষমতাসীন সরকারকে হঠানোর বার্তা দিয়েছেন কারান্তরীণ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে খালেদা জিয়া বিএনপির প্রতি এই বার্তা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ২২ সেপ্টেম্বর, শনিবার বিকালে রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নাগরিক সমাবেশে প্রধান বক্তা হিসেবে অংশ নিয়ে মির্জা ফখরুল এ কথা জানান।


মির্জা ফখরুল বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়া আজকে স্যাঁতস্যাঁতে কারাগারে মিথ্যা ও সাজানো মামলা আটক আছেন। তিনি (খালেদা) কারাগার থেকে আমাদের খবর পাঠিয়েছেন, যেকোনো মূল্যে জাতীয় ঐক্য তৈরি করে এই সরকারকে সরাতে হবে। আমার কী হবে, না হবে, জানি না।

এই সরকার‌কে স‌রি‌য়ে দি‌তে না পার‌লে বাংলা‌দে‌শের মানুষের স্বাধীনতা থাক‌বে না ব‌লে মন্তব্য ক‌রে মির্জা ফখরুল বলেন, জাতীয় ঐক্য গঠ‌নে আমরা যারা আজ এক‌ত্রিত হয়ে‌ছি, তা‌দের সক‌লের দা‌বি প্রায় এক। কা‌জেই আমরা দৃঢ়তার স‌ঙ্গে বল‌ছি, নির্বাচ‌নের আ‌গে সংসদ ভে‌ঙে দি‌তে হ‌বে, অ‌যোগ্য নির্বাচন ক‌মিশ‌নের পুনর্গঠন কর‌তে হ‌বে, ই‌ভিএম পদ্ধ‌তি কোনো ম‌তে প্র‌য়োগ করা যাবে না, নির্বাচনকালে সেনাবা‌হিনী মোতা‌য়েন কর‌তে হ‌বে, তা‌দের‌কে ম্যা‌জি‌ট্রে‌সি ক্ষমতা দি‌তে হ‌বে, নির্দলীয় সরকা‌রের অধী‌নে নির্বাচন হ‌তে হ‌বে।

জাতীয় ঐক্য প্র‌ক্রিয়ার আ‌য়োজ‌নে নাগ‌রিক সমা‌বে‌শে অংশ নেওয়া নেতা‌দের উ‌দ্দেশে মির্জা ফখরুল ব‌লেন, আসুন ন্যূনতম কর্মসূচি ও দা‌বি আদা‌য়ে জনগণ‌কে স‌ঙ্গে নি‌য়ে আ‌ন্দোলন শুরু ক‌রি। খা‌লেদা‌ জিয়াসহ সকল কারাব‌ন্দির মু‌ক্তি ও জনগ‌ণের সরকার প্রতিষ্ঠা ক‌রি। তাহ‌লে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। কারণ আমরা ঐক্যের প‌থে ই‌তোম‌ধ্যে একধাপ এ‌গি‌য়ে গে‌ছি। আশা করি, আগামী দিনে তাদের (জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের) নেতৃত্বে এগিয়ে যেতে পারব।

ফখরুল বলেন, দেশে যে দুঃশাসন চলছে, মানুষের আশা খান খান করে দিয়েছে। একদলীয় শাসনে নির্যাতিত হচ্ছে জনগণ।

গণতন্ত্র রাক্ষার করার আন্দোলন করতে গিয়ে আজকে খালেদা জিয়া কারাগারে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার আগে তিনি বলে গেছেন, দেশকে বাঁচাতে হলে, স্বাধীনতা রক্ষা করতে হলে, জাতীয় ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই। এই সরকারকে সরাতে হলে ঐক্যই হলো একমাত্র বিকল্প।

কর্মসূচির শুরুতে স্লোগান ও বসার জায়গা সংকটে বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। অনুষ্ঠান পরিচালক বিশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উঠে গিয়ে বলেন, আমরা জাতীয় ঐক্যের অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে এসেছি। স্লোগান বন্ধ করে সুশৃঙ্খলভাবে অবস্থান করে সহযোগিতা করবেন অনুষ্ঠান সুন্দরভাবে পরিচালনার জন্য। পরে নেতাকর্মীরা শান্ত হয়।

সভায় ব্যা‌রিস্টার মওদুদ আহমদ ব‌লে‌ন, যে বা যারা জাতীয় ঐক্য প্র‌ক্রিয়ার উ‌দ্যোগ নি‌য়ে‌ছেন, তা‌দের প্র‌তি অ‌ভিনন্দন। বিএন‌পির তরফ থে‌কে আমরা দীর্ঘ‌দিন ধ‌রে ব‌লে আস‌ছি, এই স্বৈরচারী সরকারকে‌ বিদায় করা যাবে না জাতীয় ঐক্য ছাড়া। তাই আজকের এই দিন বাংলা‌দে‌শের রাজনী‌তির জন্য মাইলফলক, নতুন যাত্রা। আশা ক‌রি, এই ঐক্য আরও সুসংঘ‌টিত হ‌বে, দে‌শের মানুষ‌কে এই স্বৈরচারী সরকার‌কে বিদায় কর‌তে ঐক্যবদ্ধ কর‌বে। ত‌বে জাতীয় ঐক্য যেমন গুরুত্বপূর্ণ একইভাবে গুরুত্বপূর্ণ বিএন‌পির চেয়ারপারসন খা‌লেদা জিয়ার কারামু‌ক্তি।

এ কিউ এম বদরু‌দ্দোজা চৌধুরী ও ড. কামাল হো‌সেন‌ের উ‌দ্দেশে প্রবীণ আইনজীবী মওদুদ ব‌লেন, ভো‌টের অ‌ধিকার, গণতন্ত্র ও আই‌নের সুশাসন, বিচার‌ বিভা‌গের স্বাধীনতা ফি‌রে পে‌তে চাই। এর জন্য আমরা আপনা‌দের স‌ঙ্গে আ‌ছি এবং থাক‌ব।

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ