Foto

ছাত্রী ও কর্মী হেনস্তার অভিযোগ, মধ্যরাতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীদের আবাসিক হল বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা থেকে কয়েকজন ছাত্রীকে বের করে দেওয়ার অভিযোগে গত বুধবার মধ্যরাতে ওই ছাত্রীনিবাসের সামনে বিক্ষোভ করেছেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। বের করে দেওয়া ওই ছাত্রীরা ছাত্রলীগের কর্মী বলেও দাবি করেন বিক্ষোভকারী নেতা–কর্মীরা। গত বুধবার দিবাগত রাত একটার দিকে হলের প্রধান ফটকের সামনে দুই শতাধিক নেতা-কর্মী জড়ো হয়ে এ বিক্ষোভ করেন। রাত সাড়ে তিনটার দিকে প্রশাসনের কর্মকর্তারা এসে তাঁদের অভিযোগের মীমাংসা করেন।


ছাত্রলীগের অভিযোগ, গণরুমে জায়গা না হওয়ায় হল কর্তৃপক্ষ প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের কয়েকজন ছাত্রীকে টিভি রুম ও রিডিং রুমে থাকার ব্যবস্থা করে দিয়েছিল। তাঁদের মধ্যে ছাত্রলীগের কর্মীও রয়েছেন। বুধবার কয়েকজন সিনিয়র ছাত্রী প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে টিভি রুম থেকে তাঁদের বের হয়ে যেতে বলেন। রাতে বিষয়টি জানতে পেরে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা হলের সামনে গিয়ে বিক্ষোভ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, ওই সিনিয়র ছাত্রীদের মধ্যে কয়েকজন ইসলামী ছাত্রীসংস্থার কর্মীও আছেন। তাঁরা টিভি রুম ও রিডিং রুম থেকে জুনিয়র শিক্ষার্থীদের বের করে দেওয়ার চেষ্টা করছে। হলের একজন কর্মকর্তা ছাত্রীসংস্থার কর্মীদের কার্যক্রম চালাতে সহায়তা করছেন।

হলের প্রাধ্যক্ষ বিথিকা বণিক বলেন, "হলের টিভি রুম ও রিডিং রুম তেমন একটা ব্যবহার করা হতো না। আবার হলের গণরুমে মাত্রাতিরিক্ত শিক্ষার্থী অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে থাকতেন। তাই জুনিয়র কয়েকজন ছাত্রীকে টিভি রুমে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তবে সিনিয়র কয়েকজন ছাত্রী সেটা মানতে পারেননি। তাঁরা টিভি রুম, রিডিং রুম ফাঁকা রাখতে বলেন। এটা নিয়েই সমস্যা সৃষ্টি হয়।" পরে প্রোভিসি চৌধুরী মো. জাকারিয়াসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা এসে জুনিয়র শিক্ষার্থীদের আগের মতো টিভি রুমে থাকার ব্যবস্থা করে দিয়ে গেছেন। ছাত্রলীগের অভিযোগের প্রসঙ্গে প্রাধ্যক্ষ বলেন, "হলের কোন ছাত্রী কোন দল করে তা তো আমার পক্ষে জানা সম্ভব নয়।"

জানতে চাইলে প্রক্টর মো. লুৎফর রহমান বলেন, টিভি রুমে থাকা না–থাকা নিয়ে সিনিয়র-জুনিয়র শিক্ষার্থীদের মধ্যে সমস্যা হয়েছিল। আপাতত জুনিয়র ছাত্রীদের কয়েকজনকে টিভি রুমেই থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সিট ফাঁকা থাকা সাপেক্ষে সমস্যা সমাধানের জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে

 

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ