Foto

চুরি যাওয়া মন খুঁজে দিতে পুলিশের সাহায্য চাইলেন যুবক


এক নারী তার ‘মন চুরি করেছে’ জানিয়ে তা উদ্ধার করে দিতে ওই যুবক পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। অভিযোগের কথা শুনে থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রথমে কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়লেও পরে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পরামর্শে অভিযোগ না নিয়েই যুবকটিকে ফিরিয়ে দেন বলে এনডিটিভি জানিয়েছে।


সম্প্রতি নাগপুরের একটি থানায় এ ‘উদ্ভট ঘটনাটি ঘটেছে’ বলে ভারতীয় পুলিশের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, যুবকের অভিযোগের কথা শুনে ‘বেকুব বনে যাওয়া’ ওসি বিষয়টি তার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানান। অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় তারা এ সিদ্ধান্তে এসে উপনীত হন যে, ভারতীয় আইনে ‘মন চুরি’র অভিযোগ নেওয়া যেতে পারে এমন কোনো ধারা নেই।

ওসি পরে যুবককে জানান, তার সমস্যার সমাধান ভারতীয় পুলিশের হাতে নেই; এবং এই কারণে তার অভিযোগটিও নেওয়া যাচ্ছে না।

চুরির অভিযোগ করতে চেয়েও ব্যর্থ মনোরথে ফিরে যাওয়া যুবকের এ কাহিনীটি গত সপ্তাহে এক অনুষ্ঠানে শুনিয়েছেন নাগপুর পুলিশের কমিশনার ভুষন কুমার উপাধ্যায়ও।

চুরি যাওয়া ৮২ লাখ রুপি মূল্যমানের জিনিস উদ্ধারের পর সেগুলো প্রকৃত মালিকের হাতে ফিরিয়ে দিতে ওই অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপকথনে ভুষন বলেন, “আমরা হয়তো চুরি যাওয়া জিনিস ফিরিয়ে দিতে পারি, কিন্তু মাঝে মাঝে এমন অভিযোগও আসে যার কোনো সমাধানই করতে পারি না।”

Facebook Comments

" ইন্ডিয়ান সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ