Foto

ক্লাসিকো হিরো ম্যালকমে রক্ষা বার্সার


ম্যাচটা বার্সেলোনা জিততে চেয়েছিল। খুব করে চেয়েছিল কোপা দেল রে’র সেমিফাইনালের প্রথম লেগে এগিয়ে থাকতে। তাই দ্বিতীয়ার্ধের ৫৭ মিনিট গোল শোধ দেওয়ার পরই মাঠে নামেন মেসি। শুরুতেই পিছিয়ে পড়া বার্সার প্রাণে পানি এনে দেন বার্সার ব্রাজিলিয়ান তরুণ ম্যালকম। তার গোলের পাঁচ মিনিট পরেই মাঠে নামেন মেসি। পরের সময়টায় ক্যাম্প ন্যুতে এল ক্লাসিকো জমিয়ে তোলেন মেসি। তবে দলকে জয় এনে দিতে পারেননি তিনি। মাঠ ছাড়েন ১-১ গোলের সমতা নিয়ে।


প্রথমার্ধের শুরুতে গোল দিয়ে এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। প্রথমার্ধ জুড়েই বার্সার মাঠে রাজত্ব করে সোলারির দল। ভিনিসিয়াস জুনিয়র-বেনজেমারা দারুণ ফুটবল উপহার দিতে থাকেন। তবে দলের হয়ে গোল করেন লুকাস ভাসকেন। তার ছয় মিনিটের গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। সেই গোল প্রথমার্ধে শোধ দিতে পারেনি ভালভার্দের দল। বরং রিয়ালের গোছালে আক্রমণে ক্রস্ত ছিল তারা।

তবে দ্বিতীয়ার্ধের কিছু সময় পেরুতেই ম্যাচে ফেরে বার্সেলোনা। ম্যালকমের গোলের পর বার্সার ভিদাল-মেসিরা মাঠে নামেন। রিয়াল কোচ মাঠে নামান কাসেমিরো-বেলদের। কিন্তু ম্যাচের ছড়ি বেলরা নিতে পারেননি মেসিদের কাছ থেকে। পরের সময়টুকু ম্যাচ নিয়ন্ত্রনে ছিল বার্সার। তারা কিছু সুযোগও তৈরি করে। কিন্তু গোল দিতে পারেনি। শেষটায় রিয়ালও অবশ্য গোলের এক সুযোগ পেয়ে মিস করেছে।

বার্সার হয়ে এক প্রান্তে দারুণ খেলেন এ ম্যাচে শুরুর একাদশে জায়গা পাওয়া ম্যালকম। মেসি মাঠে আসার আগ পর্যন্ত বার্সার আক্রমণের প্রাণভোমরা ছিলেন তিনিই। তবে প্রথমার্ধে তিনি মিস করেছেন সহজ এক সুযোগ। যার জন্য ম্যালকম নিজেকে অপরাধী ভাবতে পারেন। মাঠে বার্সার থেলোয়াড়রা তিনটি এবং রিয়ালের দু’জন হলুদ কার্ড দেখেছেন। তবে এল ক্লাসিকোয় যা প্রায়ই ঘটে তেমন কোন হুড়োহুড়ি বা হাতাহাতি লাগেনি মাঠে।

রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে বার্সেলোনা অবশ্য পুরো ম্যাচে বল দখলে এগিয়ে ছিল। তারা ৫৭ ভাগ বল রেখেছে পায়ে। প্রথমার্ধে গোলের লক্ষে শট নিয়েছিল একটি। কিন্তু ম্যাচ শেষ করেছে তিন শটে। অন্যদিকে প্রথমার্ধে গোলের লক্ষ্যে দুই শট নেওয়া রিয়াল দ্বিতীয়ার্ধে গোলের লক্ষ্যে আর শট নিতে পারেনি। তবে বার্সার মাঠ থেকে কোপা দেল রে’র প্রথম লেগের সেমিফাইনালে ১-১ গোলে সমতা নিয়ে ফেরা রিয়াল নিশ্চয় বুঝিয়ে দিয়েছে বার্নাব্যুতে দ্বিতীয় লেগে দেখে নেবে তারা।

Facebook Comments

" ফুটবল সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ