Foto

কোপা লিবার্তোদোরেস ফাইনাল আয়োজন করেছে রিয়াল মাদ্রিদ


চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বোকা জুনিয়র্সকে হারিয়ে দক্ষিণ আমেরিকার ক্লাব শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই ‘কোপা লিবার্তোদোরেস’ শিরোপা জিতেছে রিভার প্লেট। এতে অন্যান্য মহাদেশসেরা ক্লাবের সঙ্গে রিভার প্লেটও লড়বে ক্লাব বিশ্বকাপে। ফাইনালে দলটির প্রতিপক্ষ হতে পারে ইউরোপসেরা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ।


সমর্থকদের হামলায় রিভার প্লেটের মাঠে স্বাগতিকদের সঙ্গে বোকা জুনিয়র্সের ফিরতি লেগ পণ্ড হলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, কোপা লিবার্তোদোরেস ফাইনালের এই ম্যাচ আর্জেন্টিনা থেকে সরিয়ে ইউরোপে আয়োজন করা হবে। আগ বাড়িয়ে আগ্রহ দেখায় রিয়াল মাদ্রিদ, পরে ম্যাচটা রিয়ালের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতেই আয়োজন করা হয়। এই ম্যাচ আয়োজন করার পেছনে রিয়াল মাদ্রিদের কি শুধু ব্যবসায়িক মুনাফা লাভের উদ্দেশ্যেই ছিল? ফুটবলীয় কারণ কি ছিল না?

অবশ্যই ছিল। বোকা জুনিয়র্সকে কোপা লিবার্তোদোরেসের ফাইনালের ফিরতি লেগে ৩-১ গোলের হারিয়ে শিরোপা জেতা রিভার প্লেটের শক্তিমত্তা এই সুযোগে সামনাসামনি দেখল রিয়াল। তাদের সঙ্গে ডিসেম্বরের ২২ তারিখ ক্লাব বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হলেও হতে পারে মাদ্রিদের ক্লাবটি।

প্রতিবছর নিজেদের মহাদেশীয় ক্লাব প্রতিযোগিতায় যারা জেতে, তারা সবাই মিলে একটা টুর্নামেন্ট খেলে, যেটা ক্লাব বিশ্বকাপ নামে পরিচিত। এ পর্যন্ত রিয়াল মাদ্রিদ, এসি মিলান, বার্সেলোনা, বায়ার্ন মিউনিখ, ইন্টার মিলান, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, করিন্থিয়ান্সের মত ক্লাব এই মর্যাদার শিরোপা জিতেছে। এবার এই টুর্নামেন্টে খেলার জন্য নির্বাচিত হয়েছে ইউরোপের (উয়েফা) চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ, দক্ষিণ আমেরিকার (কনমেবলের কোপা লিবার্তোদোরেস) চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ক্লাব রিভার প্লেট, এশিয়ার (এএফসি) চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ক্লাব জাপানের কাশিমা অ্যান্টলার্স, আফ্রিকার (সিএএফ) চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ক্লাব তিউনিসিয়ার এস্পেরান্সে দে তিউনিস, উত্তর আমেরিকার (কনক্যাকাফ) চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ক্লাব মেক্সিকোর গুয়াদালাহারা ও ওশেনিয়া অঞ্চলের (ওএফসি) চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ক্লাব টিম ওয়েলিংটন। এদের সঙ্গে রয়েছে স্বাগতিক আরব আমিরাতের প্রো-লিগজয়ী ক্লাব আল-আইন।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ক্লাব বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ মুখোমুখি হবে কাশিমা অ্যান্টলার্স ও গুয়াদালাহারার মধ্যে যে দল জয়ী হবে তার সঙ্গে। আরেক সেমিতে রিভার প্লেট লড়বে এস্পেরান্সে দে তিউনিস, আল-আইন ও টিম ওয়েলিংটনের মধ্যে যে সেরা হবে, তার সঙ্গে। দলগুলোর শক্তিমত্তা বিবেচনা করলে বোঝা যায়, ফাইনালে রিভার প্লেটের সঙ্গে রিয়ালের দেখা হওয়ার সম্ভাবনাই সবচেয়ে বেশি।

তা ছাড়া বেশ কয়েক দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে রিভার প্লেটের আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার এজেকিয়েল প্যালাসিওসকে মনে ধরেছে রিয়াল মাদ্রিদের, মাদ্রিদের ক্লাবটিতে চলে আসতে পারেন তিনি। রিয়ালের সামনে সরাসরি আরেকবার ‘অডিশন’ দেওয়ার সুযোগও পাচ্ছেন প্যালাসিওস, যদি এই দুই দল ক্লাব বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠে আরকি।

Facebook Comments

" ফুটবল সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ