Foto

কালো টাকা সাদা করার সুযোগের পক্ষে রওশন এরশাদ


বাজেটে কালো টাকা সাদা করার প্রস্তাবের পক্ষে জোর সমর্থন জানিয়েছেন জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় উপনেতা বেগম রওশন এরশাদ। শনিবার সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে এর পক্ষে বক্তব্য দেন তিনি। রওশন এরশাদ বলেন, কালো টাকা সাদা করার সুযোগ প্রত্যেক দেশেই আছে। আমাদের ব্যবসায়ীদের এই সুযোগ দিতে হবে।


তিনি বলেন, কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দিলে বিত্তশালীরা বিনিয়োগ করবেন। না হলে টাকা পাচার হয়ে যাবে। এসব টাকা বিনিয়োগ হলে এবং শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হলে কর্মসংস্থান বাড়বে।

এসময় জিডিপির প্রবৃদ্ধির হার অব্যাহতভাবে বৃদ্ধি করতে হলে রাজস্ব আয় ও ব্যয় খাতে ব্যাপক হারে সংস্কার করতে হবে উল্লেখ করেন রওশান এরশাদ।

তিনি বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য ৫০ লাখ টাকার টার্নওভার পর্যন্ত কর অবকাশ, নতুন উদ্যোক্তাদের জন্য ব্যবসা শুরুর মূলধন বরাদ্দ রাখার উদ্যোগ ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। এক্ষেত্রে নারী উদ্যোক্তাদের প্রধান্য দিতে হবে।

প্রস্তাবিত ভ্যাট কাঠামো বাস্তবায়নের আগে বিশেষজ্ঞের মতামত নেয়া প্রয়োজন রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। বিরোধী দলীয় উপনেতা শিক্ষার্থীদের রেজাল্টের উপর গুরুত্ব না দিয়ে শিক্ষার মানোন্নয়নের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করার আহবান জানান।

রওশন এরশাদ বলেন, সাধারণ মানুষকে পুঁজি বাজারে বিনিয়োগে আগ্রহী করার জন্য পুঁজি বাজারকে একটি আকর্ষণীয় খাত হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। ভাল কোম্পানিকে পুঁজিবাজারে আনা গেলে এ খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাবে। ই-কমার্স উৎসাহিত করতে অনলাইন কেনাকাটায় ভ্যাট আরোপের প্রস্তাব প্রত্যাহার করার আহবান জানান তিনি।

গ্রামের বৈশিষ্ট ঠিক রেখে ’আমার গ্রাম আমার শহর’ কর্মসূচি বাস্তবায়নের আহবান জানিয়ে রওশন এরশাদ বলেন, সমবায়ের ভিত্তিতে জমিতে চাষাবাদ করতে পারলে কৃষক লাভবান হবে। তিনি কৃষিতে প্রণোদনা আরো বাড়ানোর আহবান জানান।

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ