Foto

কারারক্ষীর মাধ্যমেই ‘ঢুকছে’ ইয়াবা


রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের এক কারারক্ষীকে ১০০টি ইয়াবা বড়িসহ আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তাঁর সঙ্গীর কাছ থেকে আরও ১০০টি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নগরের রাজপাড়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলার পর গতকাল বিকেলে তাঁদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।


গ্রেপ্তার কারারক্ষী মাসুদ রানার (৩০) বাড়ি রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার মেরামতপুর গ্রামে। আইডি নম্বর ১০৭৫। মাসুদের সঙ্গে আটক হওয়া আফজাল হোসেনের বাড়ি (৩৯) চারঘাটের রাউথা গ্রামে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত বুধবার দিবাগত রাত তিনটায় নগরের মেডিকেল কলেজের বন্ধগেট এলাকা থেকে তাঁদের আটক করা হয় বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রাজপাড়া থানার উপপরিদর্শক আশরাফ আলী জানান, আফজালের নামে চারঘাট থানায় মাদক, অস্ত্রসহ ১৫টি মামলা রয়েছে। আসামি হিসেবে রাজশাহী কারাগারে থাকার সময় মাসুদের সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়। কারাগারে বসেই মাদক ব্যবসার পরিকল্পনা করেন। আফজাল ছাড়া পাওয়ার পর মাসুদ রানার কাছে ইয়াবা সরবরাহ শুরু করেন। মাসুদ কারাগারের ভেতরের বন্দী মাদকাসক্তদের কাছে চড়া দামে তা বিক্রি করেন।

এ ব্যাপারে কারাগারের জ্যেষ্ঠ কারা তত্ত্বাবধায়ক হালিমা খাতুনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন না ধরে খুদে বার্তা পাঠিয়ে বলেন, তিনি মিটিংয়ে ব্যস্ত আছেন। জরুরি বিষয় থাকলে খুদে বার্তা পাঠাতে বলেন। খুদে বার্তায় বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি কোনো বক্তব্য দেননি।

রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান বলেন, কারারক্ষীরাই বন্দীদের তল্লাশি করে ভেতরে ঢোকান। তাঁরাই যদি ইয়াবা বহন করেন, তাহলে আর কে তল্লাশি করবে! এই সুযোগে তাঁরা ভেতরে ইয়াবা নিয়ে যান।

 

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ