Foto

এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বধের প্রত্যয়


জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ শেষ হয়েছে এই কদিন আগে। এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। সিরিজে দুটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে দুই দল। সিরিজের ফলাফলের উপর নির্ভর করবে দুই দলের র‍্যাঙ্কিংয়ের ওঠা-নামা। তবে প্রস্তুতি ম্যাচে কিছুটা আশা জাগিয়েছে বাংলাদেশ।


বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ চলার কারনে প্রাথমিকভাবে মাত্র ১৩ সদস্যের দল ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্ট এবং জাতীয় ক্রিকেট লিগে দুর্দান্ত পারফর্ম করা সাদমান ইসলাম প্রস্তুতি ম্যাচেও দুই সেশন ব্যাট করে নজর কেড়েছেন কোচ এবং নির্বাচকদের। তাই জাতীয় দলে অভিষেকের সুযোগ হাতছানি দিচ্ছে তাঁর সামনে। এদিকে টেস্ট দলের অধিনায়ক বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এখনো নিজের খেলার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাননি। তবে প্রাথমিক দলে তাঁর নাম রয়েছে। ইনজুরি থেকে ড্যাশিং বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবাল সেরে না ওঠায় ইমরুল কায়েস এবং সৌম্য সরকারের উপর ভরসা রাখবে বাংলাদেশ।

অবশ্য দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের পর বাংলাদেশ আরো তিনটি করে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামবে। টেস্ট, ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং সিলেটে।

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট আগামী ২২ নভেম্বর চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে। দ্বিতীয় টেস্ট ঢাকায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ৩০ নভেম্বর থেকে বসছে।

এরপর তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ খেলবে। দিবা-রাত্রির প্রথম ম্যাচটি মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে আগামী ৯ ডিসেম্বর, বেলা ২টায় শুরু হবে। ঠিক দুদিন পর ১১ ডিসেম্বর সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ওয়ানডে। সিরিজের শেষ ওয়ানডেও একই ভেন্যুতে হবে, ১৪ ডিসেম্বর।

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটিও সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৭ ডিসেম্বর। এরপর ২০ ডিসেম্বর দ্বিতীয় এবং ২২ ডিসেম্বর তৃতীয় ম্যাচটি হবে মিরপুর শেরেবাংলায়।

Facebook Comments

" অন্যান্য খেলা " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ