Foto

এটা কিন্তু খুবই ভয়ঙ্কর অবস্থা


গুণী সংগীতশিল্পী সামিনা চৌধুরী। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে অনেক জনপ্রিয় গান তিনি উপহার দিয়েছেন। সামিনার বিশেষ দিক হলো মানসম্পন্ন কথা-সুরের উপস্থিতি। আর তাইতো তার অনেক গান এখনও কালজয়ী হয়ে মানুষের মুখে মুখে। এতটা দীর্ঘ সময় পারি দেবার পরও সামিনার তুলনা কেবল তিনিই। নিত্য নতুন গান করে চলেছেন তিনি অ্যালবাম ও সিনেমায়।


পাশাপাশি দেশ-বিদেশের বড় মাপের ষ্টেজ শোতে নিয়মিত তিন। সব মিলিয়ে কেমন আছেন? সামিনা উত্তরে বলেন, বেশ ভালো আছি। গানের মাঝেই আছি। তাই সময়টাও ভালো কাটছে। এখন ব্যস্ততা কি নিয়ে আপনার? সামিনা উত্তরে বলেন, ব্যস্ততাতো সারাজীবন একটা জায়গাতেই। গান আর গান। তাছাড়া এখন রমজান মাস চলছে। রোযা রাখছি। পরিবারকে সময় দিচ্ছি। রোযার মাসটা আমার খুব ভালো কাটে। কারণ এ মাসটি আল্লাহুর এবাদতের মধ্যে দিয়ে কাটে। তবে একটি কথা বলতে চাই। সেটা হলো সুবীর নন্দী কাকা চলে যাওয়ার পর মনটা এখনও ছটফট করে। তিনি অনেক দ্রুতই চলে গেলেন।

এখনও ভাবতে অবাক লাগে। তিনি চলে যাবার পর মনে হয়েছে আরেকবার বাবাকে হারালাম। এই কষ্টের অনুভূতিটা আসলে বলে বোঝানো যাবে না। এবার ভিন্ন প্রসঙ্গে আসি। নতুন কাজ শ্রোতারা কবে নাগাদ পাচ্ছেন ? সামিনা বলেন, আমার বেশ কিছু গান করা রয়েছে। ঈদেও দু-একটি গান প্রকাশের কথা রয়েছে। বাকী গুলো আসলে কবে নাগাদ প্রকাশ হবে এখনই বলতে পারছি না। তবে যে গানগুলো করেছি সেগুলো আমার নিজেরও খুব পছন্দের। শ্রোতাদেরও ভালো লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস। চলতি সময়ের গান কি শোনা হয়? সামিনা বলেন, অবশ্যই শোনা হয়। আমি গানের মানুষ। আমি সব ধরনের গান শুনতে পছন্দ করি। তবে এখন অবস্থাটা একটু ভিন্ন। কারণ এখন সবাই যেন গাইতে চাইছে। যে গানের ’গ’ জানে না সেও গায়ক কিংবা গায়িকা বনে যাচ্ছে। এটা কিন্তু খুবই ভয়ঙ্কর অবস্থা। কিন্তু এটা কেন হচ্ছে আমি জানি না। কারণ যার যেটায় দক্ষতা নেই সে সেই কাজটা কি করে করে! আমার মনে হয় তারকাখ্যাতি পাবার আশায় সবাই গাইতে চাইছে। আর এর খারাপ প্রভাব পড়ছে পুরো সংগীতাঙ্গনে।

এমন অবস্থা কিন্তু মেনে নেয়া যায় না। আমি খুব হতাশ বিষয়টি নিয়ে। তাহলে এর সমাধান কি? সামিনা চৌধুরী বলেন, জোর করে কিছু হয় না। জোর করে গানও হয় না। বড়জোর খানিক সময়ের জন্য আলোচনায় আসা যেতে পারে। কিন্তু টিকে থাকা যাবে না। কারণ গানকে ভালোবাসতে হবে। ধারণ করতে হবে নিজের ভেতর। তার সঙ্গে থাকবে চেষ্টা, শ্রম, ধৈর্য্য। আবার কেবল অর্থের পেছনে ছুটলেও গান হবে না। গান ভালোবাসার বিষয়। এটা ভেতর থেকে আসতে হবে। আপনার পরামর্শ কি নতুন প্রজন্মের প্রতি? সামিনা চৌধুরী বলেন, আমি এতটুকু বলবো তরুণ প্রজন্ম যেন বুঝে, শুনে, শিখে গান করে। তারকাখ্যাতি পাবার উদ্দেশ্যে গান না করে। মৌলিক গানের ওপর যেন জোর দেয়। অনেকেই পুরোনো জনপ্রিয় গান কাভার করে খ্যাতি অর্জন করতে চায়। অন্যের ওপর ভর করে দীর্ঘ সময় টিকে থাকা যাবে না। তাই এ বিষয়ে সচেতন হতে হবে।

Facebook Comments

" বিনোদন " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ