Foto

এজেন্ট ব্যাংকিং চালু করল ব্র্যাক ব্যাংক


বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আধুনিক ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দিতে এজেন্ট ব্যাংকিং সেবা চালু করেছে ব্র্যাক ব্যাংক। মঙ্গলবার রাজধানীর গুলশানে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এই সেবার উদ্বোধন করেন ব্যাংকটির চেয়ারম্যান ফজলে হাসান আবেদ। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের আট বিভাগে ১০টি এজেন্ট ব্যাংকিং চালু করে তিনি বলেন, আগামী তিন মাসের মধ্যে পঞ্চাশের বেশি চালু করা হবে। এক বছরের মধ্যে সারা দেশে চালু করা হবে ছয়শ।


“বাংলাদেশের কোন গ্রাম আমাদের এজেন্ট ব্যাংকিং সেবার বাইরে থাকবে না।”

অনুষ্ঠানে ব্র্যাক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী সেলিম আর এফ হোসেন বলেন, “এজেন্ট ব্যাংকিং সেবা অন্যান্য ব্যাংকিং সেবার চেয়ে সাশ্রয়ী এবং এই সেবাটি সপ্তাহে সাত দিন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। এর মাধ্যমে ব্র্যাক ব্যাংক ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবার যাত্রা শুরু করল।

“সাধারণ ব্যাংকে যেসব সেবা পাওয়া যায়, তা এজেন্ট ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমেও দেওয়া সম্ভব।”

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এজেন্ট ব্যাংকিং চালুর ফলে দেশের প্রত্যন্ত এলাকার গ্রাহকরা অ্যাকাউন্ট খোলা, নগদ টাকা জমা এবং উত্তোলন, ডিপিএস, এফডিআর, ফান্ড ট্রান্সফার, বৈদেশিক রেমিটেন্স, ইউটিলিটি বিল ও বিমা প্রিমিয়াম, ঋণ গ্রহণ এবং পরিশোধ, সরকারি ভাতা গ্রহণ, ডেবিট কার্ড এবং চেক বই গ্রহণ, স্কুলের বেতন প্রদানসহ অন্যান্য সেবা নিতে পারবেন।

সেবাটি চালুর পেছনে মূল লক্ষ্য তুলে ধরে ফজলে হাসান আবেদ বলেন, “আমাদের লক্ষ্য দেশের প্রান্তিক অঞ্চলে থাকা দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে ব্যাংকিং সেবার আওতায় নিয়ে আসা। নতুন এই সেবা গ্রামীণ অর্থনীতির অগ্রগতিতে ভূমিকা রাখবে এবং নতুন কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করবে।”

এজেন্ট ব্যাংকিং হলো- সমঝোতা স্মারকে চুক্তির বিপরীতে এজেন্ট নিয়োগ দিয়ে ব্যাংকিং সেবা দেওয়া। ২০১৩ সালের ৯ ডিসেম্বর এজেন্ট ব্যাংকিং নীতিমালা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

২০১৪ সালে ব্যাংক এশিয়া প্রথম এজেন্ট ব্যাংকিং চালু করে। এরপর আরও কয়েকটি ব্যাংক এই সেবা চালু করেছে।

 

Facebook Comments

" ব্যবসা ও বাণিজ্য " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ