Foto

ইন্দোনেশিয়ায় আকস্মিক বন্যার মধ্যেই ৫.৫ মাত্রার ভূমিকম্প


ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়া প্রদেশে আকস্মিক বন্যায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭৩ জনে দাঁড়িয়েছে। এরই মধ্যে গতকাল রোববার লম্বক দ্বীপের পর্যটন কেন্দ্র ৫ দশমিক ৫ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠে।


দেশটির কর্মকর্তার বরাত দিয়ে তাইওয়ান নিউজ জানিয়েছে, রোববার স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৭ মিনিটে লম্বকে পশ্চিম নুসা তুঙ্গারা প্রদেশে ভূকম্পন অনুভূত হয়। এতে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আগ্নেয়গিরির মাউন্ট রিনজানি থেকে ভূমিধস সৃষ্টি করেছে। এতে দুজন পর্যটন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৪৪ জন।

এদিকে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাপুয়ার প্রাদেশিক রাজধানী জয়াপুরার নিকটবর্তী সেন্টানি এলাকায় শনিবার থেকে মুশলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। তীব্র বর্ষণের ফলে আকস্মিক বন্যার কবলে পড়েন স্থানীয়রা। অন্তত ১৫০ ক্ষতিগ্রস্ত বাসিন্দা স্থানীয় সরকারি অফিসগুলোতে আশ্রয় নিয়েছেন। আহত হয়েছেন ৭০জন। চার হাজার মানুষ এখনো অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছে।

দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার মুখপাত্র সুতোপো পুরয়ো নুগরোহো জানান, এখন পানি কমলেও বন্যায় লোকালয় কর্দমাক্ত হয়ে গেছে। পানির স্রোতের সঙ্গে আসা কাঠের গুঁড়ি ও অন্যান্য সামগ্রী রয়ে গেছে।

বন্যায় অন্তত ৯টি বাড়ি, দুটি সেতু এবং স্থানীয় বিমানবন্দরে পার্ক করে রাখা একটি ছোট প্লেন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানান নুগরোহো।

পাপুয়ার পুলিশের মুখপাত্র সারিয়াদি ডায়াজ বলেন, বন্যায় কমপক্ষে দেড়শো ঘরবাড়ি পানিতে ডুবে গেছে। রেড ক্রস ও স্বেচ্ছাসেবক কর্মীরা বাস্তুচ্যুতদের সাহায্য করছে।

 

Facebook Comments

" বিশ্ব সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ