Foto

আ.লীগের এজেন্টকে মারধর


ঢাকায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীর এজেন্টকে মারধর করে হাত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার বিএনপির দুই কর্মীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে হাজির করে পাঁচ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত তাঁদের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।


কারাগারে পাঠানো ওই দুই কর্মী হলেন রিফাত (২০) ও আসিফ (২৩)। গত সোমবার এই দুজনকে গ্রেপ্তার করেছিল যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশ।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আওয়ামী লীগের পোলিং এজেন্ট শেখ মো. পল্টু (৪৭) এই মামলার বাদী তিনি। গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে যাত্রাবাড়ীর শেখদী আবদুল্লাহ মোল্লা উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন পল্টু। ভোট গণনা শেষে ভোটকেন্দ্র থেকে বাইরে বের হলে সন্ধ্যার সময় পল্টুকে ওই দুই আসামি এলোপাতাড়ি মারধর করেন। এ সময় তাঁকে রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করা হয়।

রিমান্ড আবেদনে আরও বলা হয়, আওয়ামী লীগের এজেন্ট পল্টুর কাছ থেকে জোর করে আসামি রিফাত ও আসিফ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা কেড়ে নেন। পল্টুকে হত্যার হুমকিও দিয়েছেন তাঁরা। এ ঘটনায় জড়িত অপর আসামিদের খুঁজে বের করার জন্য ওই দুজনকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা জরুরি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা যাত্রাবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুব্রত বিশ্বাস বলেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থীর এজেন্ট পল্টুকে মেরে ডান হাত ভেঙে দিয়েছেন বিএনপির এই দুই কর্মী। এই অভিযোগে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রসঙ্গত, নির্বাচনে ঢাকা-৫ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুর রহমান মোল্লা বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপির প্রার্থী নবী উল্লাহ নবী।

 

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ