Foto

আতঙ্কে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প


চাইলেও সমস্যা, আতঙ্ক পিছু ছাড়ছে না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। এবার আতঙ্কে আছেন অভিশংসিত হওয়ার। এ নিয়ে উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন তিনি। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এক ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক খবরে এই তথ্য জানিয়েছে।


সূত্র জানিয়েছে, ট্রাম্প আশঙ্কা করছেন, ডেমোক্রেটরা কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের নিয়ন্ত্রণ নিলে তার অভিশংসনের বিষয়টি একটি ‘বাস্তব সম্ভাবনা’ হতে পারে। তবে এটা হবে কিনা সে ব্যাপারে নিশ্চিত নন ট্রাম্প।

এদিকে হোয়াইট হাউসের আরেকটি ঘনিষ্ঠ সূত্র সিএনএন-কে জানিয়েছে, ট্রাম্পকে অভিশংসন করতে যে বিষয়টি মুখ্য হতে পারে তা হলো- গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ট্রাম্পের প্রচারণা টিমের আর্থিক অনিয়ম ও নীতির লঙ্ঘন

ট্রাম্পের সাবেক আইনজীবী মাইকেল কোহেন সেসময় মুখ বন্ধ রাখার জন্য কয়েকজন নারীকে অর্থ দিয়েছিলেন। এরই মধ্যে আইনজীবী কোহেনের এ ধরনের কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে।

মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের তদন্তে উঠে এসেছে, ট্রাম্পের নির্দেশনায় কোহেন দুই নারীকে টাকা দেন। ওই নারীদের সঙ্গে ট্রাম্পের যৌন সম্পর্ক ছিল এবং সে সম্পর্কে কথা না বলতেই এই টাকা দেওয়া হয়। যা নির্বাচনী প্রচারণার আর্থিক নীতির লঙ্ঘন।

গত শুক্রবার নিউ ইয়র্কের প্রসিকিউটররা মাইকেল কোহেনের বিরুদ্ধে শাস্তির মেয়াদের বিষয়ে একমত হয়েছেন। বুধবার এই সাজা ঘোষণা করা হতে পারে। এরপর থেকেই ট্রাম্পের অভিশংসনের গুঞ্জন মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।

ডেমোক্র্যাটরা বলছেন, ট্রাম্প অভিশংসিত হওয়ার মতো অপরাধ করেছেন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর জেলেও যেতে হতে পারে তাকে।

এদিকে হোয়াইট হাউসের কর্মকর্তারা মনে করছেন, ট্রাম্প টিমের সঙ্গে সম্ভাব্য রুশ যোগসাজশের বিষয়ে স্পেশাল কাউন্সেল যে তদন্ত করছে সেটা শেষ পর্যন্ত অভিশংসনের পথে গড়াবে না।

আর্থিক ইস্যুটিও অভিশংসনের ক্ষেত্রে দুই দলের সমর্থন পেতে যথেষ্ট হবে না। এছাড়া সিনেট এখনো রিপাবলিকানদের দখলেই রয়েছে।

Facebook Comments

" বিশ্ব সংবাদ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ