Foto

আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি রনি বিএনপিতে


ভোটের আগে দলবদলের পালায় নাম লেখালেন পটুয়াখালী-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মাওলা রনি। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পরদিন রোববার তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন। গলাচিপা ও দশমিনা নিয়ে গঠিত এই আসনটিতে ধানের শীষের মনোনয়ন বাগিয়ে নেওয়ার কথাও সাংবাদিকদের জানিয়েছেন তিনি।


সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে রনির যোগদানের অনুষ্ঠানের আগেই ওই আসনে বিএনপির মনোনয়নের প্রত্যয়নপত্র নিয়ে গিয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি হাসান মামুন।

রনিকে দলে স্বাগত জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “আমাদের মাঝে এসেছেন দেশের একজন অত্যন্ত জনপ্রিয় রাজনৈতিক নেতা, কলামিস্ট ও তরুণ সমাজের কাছে অত্যন্ত প্রিয় গোলাম মাওলা রনি। আপনারা সবাই তাকে চেনেন। আমি তাকে সাদরে স্বাগত জানাচ্ছি।

“আমাদের এই কঠিন সময়ে, দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে তার এই যোগদান নিঃসন্দেহে আমরা যারা গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করছি, তাদের অনেক অনুপ্রাণিত করবে।”

রনি বলেন, “আমি অত্যন্ত স্বজ্ঞানে, সুস্থ শরীরে, সুস্থ মনে, চিন্তাভাবনা করে আমার যে বর্তমান দল আওয়ামী লীগ, সেই আওয়ামী লীগ থেকে আমি এখন স্বজ্ঞানে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলে যোগদান করলাম।

“আমার বোধ-বুদ্ধি-বিশ্বাস, শক্তি-সামর্থ-চিন্তা-চেতনায় বলছি, সর্বোচ্চ শক্তি নিয়ে এই দলকে এবং এই দলের মাধ্যমে জাতীয়তাবাদী আদর্শের যারা আছেন, তাদের সকলকে সেবা করব।”

মির্জা ফখরুল বলেন, “কিছুক্ষণ আগে আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান মহোদয়ের সাথে আমার কথা হয়েছে। তিনি অত্যন্ত খুশি হয়েছেন এবং তিনি আপনাকে (রনি) তার ব্যক্তিগত শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।”

পটুয়াখালী-৩ আসনে ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ছিলেন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন।

জরুরি অবস্থার পর তিনি সংস্কারপন্থি হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পর ২০০৮ সালে তাকে বাদ দেওয়া হয়। রাজনীতিতে অচেনা রনি সেবার আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

তবে ২০১৪ সালে দশম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জাহাঙ্গীরকে ফিরিয়ে আনে দলে। সেবার নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গীরের সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে লড়াইয়ে নেমে হেরে যান রনি।

এরপর আওয়ামী লীগে রনিকে সক্রিয় দেখা না গেলেও টিভি আলোচনা অনুষ্ঠানে নিয়মিত মুখ তিনি।

পটুয়াখালী-৩ আসনে এবার জাহাঙ্গীরকেও মনোনয়ন দেয়নি আওয়ামী লীগ। সেখানে নৌকার প্রার্থী হতে যাচ্ছেন এস এম শাহাজাদা। ছাত্রলীগের সাবেক এই স্থানীয় নেতা বর্তমান সিইসি কে এম নূরুল হুদার ভাগ্নে।

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ