Foto

আওয়ামী লীগের দুটি প্রচারকেন্দ্রে হামলা


চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড পৌর সদরে আওয়ামী লীগের দুটি অস্থায়ী নির্বাচনী প্রচারকেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণ, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে পৌর সদরের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ভূঁইয়াপাড়া ও গজারিয়া দীঘিরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।


আওয়ামী লীগের প্রার্থী দিদারুল আলম ও সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলওয়ার হোসেন ঘটনাস্থল দুটি পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় বাসিন্দাদের বরাত দিয়ে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর হারাধন চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, স্থানীয় লোকজন তাঁকে জানিয়েছেন, গতকাল দিবাগত রাত দুইটার দিকে গজারিয়া দীঘিরপাড় এলাকায় অবস্থিত আওয়ামী লীগের অস্থায়ী নির্বাচনী প্রচারকেন্দ্রের সামনে মুহুর্মুহু ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পান। এ সময় দুর্বৃত্তরা বঙ্গবন্ধুর ছবি, আসবাব ভাঙচুর করে। তিনি জানান, দুর্বৃত্তরা কয়েক শ গজ দূরে ভূঁইয়াপাড়ার শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের সামনেও কয়েকটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। আধা পাকা ঘরটিতে মূলত নির্বাচনী ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন রাখা ছিল। দুর্বৃত্তদের আগুনে টিন ও ভেতরে থাকা সবকিছু পুড়ে যায়। খবর পেয়ে সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিস সেখানে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার পর এলাকার লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে বলে তিনি জানান।

সাংসদ দিদারুল আলম প্রথম আলোকে বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী চক্র গভীর রাতে শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদে রাখা নির্বাচনী পোস্টার, ব্যানার, লিফলেটসহ আসবাব পুড়িয়ে দেয়। এর আগে তারা গজারিয়া দীঘিরপাড় এলাকায় নির্বাচনী কার্যালয়ে ভাঙচুর করে। বঙ্গবন্ধুর ছবি পর্যন্ত ভাঙচুরের কবল থেকে রক্ষা পায়নি। এ ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে মামলা করবেন বলে জানান তিনি।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি দেলওয়ার হোসেন বলেন, তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। যে বা যারা এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকুক না কেন, কাউকে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান তিনি।

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ